অন্তঃসত্ত্বার মৃত্যু: ব্রাজিলে অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকাদান স্থগিত

আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
টিকা নেয়ার পর অন্তসত্ত্বা নারীর মৃত্যুর জেরে অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি করোনাভাইরাসরোধী টিকার ব্যবহার স্থগিত করেছে ব্রাজিল। মা হতে চলা ওই নারীর মৃত্যুর সঙ্গে টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার সম্পর্ক থাকতে পারে আশঙ্কা থেকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ব্রাজিলিয়ান স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ। ব্রাজিলের টিকাদান কমর্সূচির সমন্বয়ক ফ্রান্সিয়েল ফ্রান্সিনাতো সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, দেশটির স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ আনভিসার পরামর্শের ভিত্তিতে মঙ্গলবার থেকে অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা ব্যবহার স্থগিত করা হয়েছে। তবে সিনোভ্যাক ও ফাইজারের টিকার ব্যবহার অব্যাহত রয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ব্রাজিলিয়ান কর্তৃপক্ষ রিও ডি জেনিরোর ওই নারীর মৃত্যুর ঘটনা তদন্ত করছে। জানা যায়, ৩৫ বছর বয়সী ওই নারী ২৩ সপ্তাহের অন্তসত্ত্বা ছিলেন। অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা নেয়ার পর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। টানা পাঁচদিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার পর গত সোমবার মারা যান ওই নারী। তার হেমোরেজিক স্ট্রোক (রক্তক্ষরণজনিত স্ট্রোক) হয়েছিল বলে জানা গেছে। এক বিবৃতিতে আনভিসা বলেছে, ওই নারীর হেমোরেজিক স্ট্রোকের সঙ্গে টিকা ব্যবহারের সাথে সম্পর্ক রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। অ্যাস্ট্রাজেনেকা কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে বলেছে, তাদের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে অন্তসত্ত্বা ও স্তন্যদানকারী নারীরা অন্তর্ভুক্ত ছিল না। প্রাণীদের ওপর চালানো পরীক্ষায় গর্ভাবস্থা ও ভ্রূণের বিকাশে ক্ষতি হওয়ার মতো প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি বলেও জানিয়েছে তারা। ব্রাজিলে আর কোনো অন্তসত্ত্বা নারী টিকাগ্রহণের পর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার শিকার হয়েছেন কি না তা নিশ্চিত করেনি আনভিসা।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *