অপরাধীদের কাছে আতঙ্কের নাম মঠবাড়িয়া ওসি বাদল

সারাবাংলা

শাকিল আহমেদ, মঠবাড়িয়া থেকে
পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়ায় মাদকসেবী, সন্ত্রাসী, ভূমিদস্যু ও বখাটেদের কাছে এক মূর্তিমান আতঙ্ক হয়ে উঠেছেন ওসি নূরুল ইসলাম বাদল। তিনি মঠবাড়িয়ায় যোগদানের পর থেকে একের পর এক মাদকসেবী ও সন্ত্রাসী গ্রেফতারে অশান্ত মঠবাড়িয়ায় এখন শান্তি বিরাজ করছে। মঠবাড়িয়া থানায় যোগদানের মাত্র দুই মাসের মাথায় মাদক উদ্ধার, ওয়ারেন্ট তালিম ও আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় বিশেষ অবদান রাখায় বরিশাল রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ ওসি হিসেবে সম্মামনা ক্রেস্ট ও সনদ পেয়েছেন।
ওসি নূরুল ইসলাম বাদল দৈনিক ঢাকা প্রতিদিনের সঙ্গে একান্ত সাক্ষাতকারে বলেন, অপরাধীদের কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। তারা যতই শক্তিশালী হোক আইনের আওতায় এনে তাদের বিচার কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হবে। সন্ত্রাস, মাদকসেবী, ভূমিদস্যু, ইভটিজার এরা সমাজের ব্যধি। গুটি কয়েক সন্ত্রাস ও মাদকসেবীর জন্য গোটা সমাজকে নষ্ট হতে দেওয়া যাবে না। তিনি আরও বলেন, সাধারণ মানুষের জানমাল নিরাপত্তায় পুলিশ দিন-রাত নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তা ছাড়া মঠবাড়িয়া একটি অনেক বড় উপজেলা। এখানে জনগণের তুলনায় আমার পুলিশ সদস্যের সংখ্যা অপ্রতুল। তারপরেও যতদূর সম্ভব মানুষকে সেবা দিয়ে যাচ্ছি।
উল্লেখ্য, ওসি নূরুল ইসলাম বাদল গত ০৭ মে মঠবাড়িয়া থানায় যোগদান করেন। এরপর থেকে মঠবাড়িয়ার মাদকসেবী, সন্ত্রাস, ভূমিদস্যু ও বখাটেদের কাছে এক মূর্তিমান আতঙ্ক হয়ে উঠেছেন। তিনি মঠবাড়িয়াকে মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত করতে বিভিন্ন সময় সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে থাকেন। এ ছাড়া তিনি মঠবাড়িয়ায় যোগদানের পর থানায় দালাল-বাটপারের দৌরাত্মও কমে যায়। অপর দিকে থানায় কাউন্টার মামলা নেওয়াও বন্ধ করে দেন। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় ফোর্সদের সঙ্গে রাত জেগে ঘুরে বেড়ান প্রত্যন্ত অঞ্চলে। ওসি নূরুল ইসলাম বাদল মঠবাড়িয়াকে সন্ত্রাসী ও মাদকমুক্ত করতে রাজনৈতিক নেতারা সুশীল সমাজের প্রতিনিধি ও সাংবাদিকসহ সব শ্রেনি-পেশার লোকের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *