আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থায় মহড়া শুরু করেছে ইরান

আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :  ইরানের সেনাবাহিনী ও দেশটির ইসলামিক রেভ্যুলিউশন গার্ড কর্পস (আইআরজিসি) একটি বড় ধরনের যৌথ আকাশ প্রতিরক্ষা মহড়া শুর করেছে। দুই দিনের এই মহড়াটি মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) ইরানের মধ্যাঞ্চলীয় মরু এলাকায় শুরু হয়। এতে নেতৃত্ব দেয় খাতাম আল-আনবিয়া আকাশ প্রতিরক্ষা সদর দফতর।

সামরিক কমান্ডারের বরাত দিয়ে আল জাজিরা জানায়, মহড়ার অংশ হিসেবে মানবচালিত ও মানববিহীন আকাশ যান ও ক্ষেপণাস্ত্র ভূপৃষ্ঠের টার্গেট লক্ষ্য করে ছোড়া হয়েছে। এর মাধ্যমে আকাশ প্রতিরক্ষা ও রাডার ব্যবস্থার দক্ষতা যাচাই করা হবে। রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে প্রচারিত ফুটেজে দেখা গেছে, স্থানীয় আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা দ্বারা উৎপাদিত বেশ কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়েছে।

খাতাম আল-আনবিয়া ঘাঁটির কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কাদের রহিমজাদেহ জানান, মহড়ায় আইআরজিসি’র তৃতীয় খোরদাদ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিক্ষা ব্যবস্থা এবং সেনাবাহিনীর ১৫তম খোরদাদ ব্যবস্থা মোতায়েন করা হয়েছে।

এছাড়া ইরানের অন্যান্য ইলেক্ট্রনিক ও সাইবার যুদ্ধের সরঞ্জামও মহড়ায় রাখা হয়েছে। ইরানের আকাশ প্রতিরক্ষা বাহিনীর কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আলিরেজা সাবাহিফার্দ জানান, মহড়ার প্রথম দিন সফল ছিল। তিনি বলেন, আজ যেসব সরঞ্জাম আমরা ব্যবহার করেছি এগুলো সব দেশে তৈরি এবং অত্যাধুনিক প্রযুক্তির। সূত্র: আল জাজিরা

মন্তব্য করুন