আখাউড়ায় ট্রলারের ধাক্কায় ভেঙে গেল রাস্তাবিহীন সেতু

সারাবাংলা

আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় ২২ বছর ধরে রাস্তাবিহীন অবস্থায় খালের মাঝখানে দাড়িয়ে থাকা সেই সেতুটি ইট বোঝাই ট্রলারের ধাক্কায় ভেঙে পরে যায়। গতকাল শুক্রবার সকালে উপজেলার ধরখার ইউনিয়নের বনগজ-কৃষ্ণনগর খালের উপর ২২ বছর আগে নির্মিত সেতুটিতে একটি ইট বোঝাই ট্রলারের ধাক্কায় সেতুটির মাঝখান দিয়ে পুরোপুরি ভেঙ্গে যায়।
সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, ট্রলারটি জেলার শাহবাজপুর ডিজিটাল ব্রীকফিল্ড থেকে ৭ হাজার ইট বোঝাই করে আখাউড়া উপজেলার ঘোলখার এলাকায় যাচ্ছিল। পথে সেতুর নিচ দিয়ে যাওয়ার সময় খালে প্রবল স্রোত থাকায় মাঝি নৌকাটি নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারেনি এতে করে ট্টলারটি সেতুর পিলারে ধাক্কা লাগলে সেতুটি মাঝখান দিয়ে ভেঙে নৌকার উপরে পড়ে যায়।
এ সময় নৌকায় থাকা শাহবাজপুর ইউনিয়নের রাজবাড়িয়া গ্রামের আব্দুল খালেক (৪৫) ও হবি (৪২) নামে দুই শ্রমীক আহত হয়।
প্রত্যক্ষদর্শী বনগজ পূবপাড়ার বাসিন্দা মো. আরমান খান জানান, আমি দূরে দাড়িয়ে ছিলাম হটাৎ দেখি নৌকাটি সেতুর পিলারে ধাক্কা মারে এতে সেতুটি ভেঙে পড়ে যায়। আমি দৌড়ে কাছে এসে দেখি নৌকায় থাকা লোকজন নৌকা থেকে বেড়িয়ে আসছে।
নৌকার মাঝি মো. রফিক জানাম, আমরা শাহবাজপুর থেকে ইট নিয়ে ঘোলখার যাওয়ার পথে এই সেতুর নিচে আসার পর এখানে প্রবল স্রোতে পানি চাপ দিলে নৌকার মাথাটা সেতুর পিলারে ধাক্কা লাগার সাথে সাথে সেতুটি ভেঙে পড়ে।
উপজেলা প্রকৌশল অফিস সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৯ সালে এলজিইডির অধীনে উপজেলা পরিষদের রাজস্ব তহবিলের অর্থে ১২০ ফুট দৈর্ঘ্য ও ৮ ফুট প্রস্থের সেতুটি বনগজ ও কৃষ্ণনগর গ্রামের মধ্যবর্তী জায়গায় খালের ওপর নির্মাণ করা হয়।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *