আখাউড়ায় সংবাদ সম্মেলন

সারাবাংলা

আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় ভাড়াটিয়া কর্তৃক বাড়ি দখলের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগী ও তার পরিবারের লোকজন। বুধবার বেলা ১১টায় পৌরশহরের রাধানগর গ্রামের অন্তর্গত কলেজপাড়ার বাসিন্দা মো.আবুল কালাম চৌধুরী তার নিজ বাড়িতে এ সংবাদ সম্মেলন করেন।সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী মো.আবুল কালাম চৌধুরী বলেন,‘১৯৯৯সালে পৌরসভার অন্তর্গত রাধানগর মৌজার ২৯৩ দাগে বিএস ১৩১০ দাগে সাড়ে চার শতক যায়গা খরিদ সূত্রে মালিক হইয়া নিজ নামে বিএস ২০৪ নং চূড়ান্ত খতিয়ানে আমার নামে লিপিবদ্ধ হয়েছে। গত ২০০১ সালের ২৪ শে জানুয়ারিতে আখাউড়া পৌরসভার তৎকালীন মেয়র মো.নূরুল হক ভূইয়া ১৫০ টাকার নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে একটি ভাড়াটিয়া চুক্তি করে মাসে ১২০০ টাকা ভাড়ার ভিত্তিতে বাড়িটি ভাড়া নেয়।

বাড়িটি ভাড়া নেয়ার পর থেকে ৫/৬ মাস ভাড়া দেয়ার পর আর ভাড়া পরিশোধ করেনি সে।আমার বাড়ির পিছনের পৌনে তিন শতক যায়গা তার কাছে বিক্রি করার শর্তে আমার কাছ থেকে ভাড়া নেয়া বাড়িটি বকেয়া ভাড়া পরিশোধসহ ছেড়ে দিবেন বলে জানান সাবেক মেয়র মো.নূরুল হক ভূইয়া।সাবেক এই মেয়রের কাছে পৌনে তিন শতক যায়গা বিক্রি ও করি।কিম্তু সে তার ক্ষমতার জোরে এখন পর্যন্ত আমার কাছ থেকে ভাড়া নেয়া সাড়ে চার শতক যায়গা বুঝাইয়া দেয়নি।’
এঘটনায় স্থানীয় সংসদ সদস্য ও আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক সহ স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযোগ অস্বীকার করে সাবেক মেয়র মো. নুরুল হক ভূইয়া বলেন, আমি বাড়িটিতে ভাড়া ছিলাম তা সত্য।পরবর্তীতে জানতে পারি যায়গাটি জেলা পরিষদের মালিকানায় আছে।পরে জেলা পরিষদ থেকে লিজ সূত্রে আমি জায়গাটির মালিক হয়েছি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *