আগামী বছর ঢাকায় আসতে পারেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান

জাতীয়

অনলাইন ডেস্ক : কোভিড-১৯ পরিস্থিতির উন্নতি হলে আগামী বছরের শুরুতে ঢাকায় আসতে পারেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। তিনি ঢাকায় অনুষ্ঠেয় ডি-৮শীর্ষ সম্মেলন কিংবা মুজিব বর্ষের সমাপনী অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ঢাকা আসতে পারেন।
বুধবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন এ তথ্য জানিয়েছেন। খবর ইউএনবির
এর আগে সকালে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় তুরস্কের পক্ষ থেকে বাংলাদেশকে চতুর্থ দফায় করোনার চিকিৎসা সামগ্রী উপহার দেওয়া হয়। পররাষ্ট্রমন্ত্রীর হাতে এ উপহার তুলে দেন দেশটির রাষ্ট্রদূত মোস্তফা উসমান তুরান।
এ সময় তুরস্ককে ধন্যবাদ জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘পরিস্থিতির উন্নতি হলে আগামী ডি-৮ সম্মেলন বা মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে বাংলাদেশে আসার ব্যাপারে সম্মত হয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। এ জন্য আমরা খুব আনন্দিত।’
বাংলাদেশের সঙ্গে তুরস্ক দুই বিলিয়ন ডলারের বাণিজ্য বাড়াতে চায় জানিয়ে আব্দুল মোমেন বলেন, তুরস্কের নতুন মিশন উদ্বোধনে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকায় আসবেন।
গত মাসে তুরস্ক সফরে দেশটির প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠকের কথা উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তুর্কি প্রেসিডেন্ট দু’দেশের বাণিজ্য সম্পর্ক বৃদ্ধির ওপর গুরুত্বারোপ করে বিদ্যমান শুল্কবাধা এড়িয়ে নতুন পণ্য, বস্ত্র, ওষুধ ও অন্যান্য খাতের বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সুনির্দিষ্ট কিছু প্রস্তাব দেন।
এছাড়া উভয় দেশে বাণিজ্য মেলায় অংশগ্রহণ নিশ্চিত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশাবাদ ব্যক্ত করে এরদোয়ান বাংলাদেশে তুরস্কের আর্থিক সহযোগিতায় একটি আধুনিক হাসপাতাল নির্মাণের প্রয়োজনীয় জমি বরাদ্দের প্রস্তাব দেন।
করোনার উপহার সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে ১০ হাজার পিস করে এন-৯৫ মাস্ক, গাউন, কাভারঅল, ২০টি করে ভেন্টিলেটর মনিটর, স্ট্যান্ড সেট প্রভৃতি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *