আজারবাইজান-আর্মেনিয়া যুদ্ধে ৭১০ সেনার মৃত্যু

আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: নাগোর্নো-কারাবাখ নিয়ে আজারবাইজানের বিরুদ্ধে আর্মেনিয়ার যুদ্ধ চলছে। এই যুদ্ধে রোববার আরো ৩৭ সৈনিকের মৃত্যু নথিভুক্ত করেছে আর্মেনিয়া। তাতে সামরিক বাহিনীর সদস্যদের মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৭১০। ইন্টারফ্যাক্স নিউজ এজেন্সি এমনই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

শনিবার মধ্যরাতে মানবিক যুদ্ধবিরতি ঘোষণার পর আর্মেনিয়া তাদের নিহত সৈন্যদের সমাহিত করার সিদ্ধান্ত নেয়। রোববার তারা অন্তেষ্টিক্রীয়ার আয়োজন করে। শুশা শহরে এই আয়োজনে অংশ নেয় সতীর্থ সামরিক বাহিনীর সদস্য ও পরিবারের সদস্যরা।

২৭ সেপ্টেম্বর থেকে নাগোর্নো-কারাবাখ অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে যুদ্ধ শুরু করে আজারবাইজান ও আর্মেনিয়া।

নাগোর্নো-কারাবাখ অঞ্চলটি মূলত আজারবাইজানের অংশ। কিন্তু বহুবছর ধরে সেটি আর্মেনিয়া শাসন করে আসছে। ১৯৯৪ সালের যুদ্ধের পর থেকে সেখানে আর্মেনিয়ার সেনাবাহিনী রয়েছে।

আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ যুদ্ধের শুরুতে জানিয়েছিলেন একমাত্র তখনই তারা যুদ্ধ থামাবে যখন আর্মেনিয়া নাগোর্নো-কারাবাখ অঞ্চল ছেড়ে যাবে। আজারবাইজান তাদের রাষ্ট্রাধীন অঞ্চলের অখণ্ডতা পুনরুদ্ধার করছে এবং সেটা উদ্ধার না হওয়া পর্যন্ত তারা থামবে না।

এ পর্যন্ত দুটি দেশ একাধিকবার যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেও সেটা ভেঙেছে। হামলা করেছে একে-অপরকে। এই হামলায় সামিরক বাহিনীর সদস্যদের পাশাপাশি শত শত বেসামরিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে। গৃহহীন হয়েছে হাজার হাজার মানুষ।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *