আজ পহেলা বৈশাখ-মাহে রমজান শুরু

জাতীয়

ডেস্ক রিপোর্ট: এবার বাঙালির প্রাণের পহেলা বৈশাখ আর মুসলিমদের সিয়াম সাধনার মাস রমজান শুরু হয়েছে একই দিনে। আবার এমন এক দিনে এই দুই গুরুত্বপূর্ণ মাস শুরু হলো, যখন সারা বিশ্ব করোনাভাইরাস নামের এক মহামারিতে আক্রান্ত। এই মহামারি থেকে নিজেদের রক্ষায় দেশে চলছে লকডাউন। তাই ঘরবন্দি মানুষ যার যার জায়গা থেকে স্বাগত জানাচ্ছে পহেলা বৈশাখকে। খোশ আমদেদ জানাচ্ছে মাহে রমজানকে।

আজ পহেলা বৈশাখে বাংলা বর্ষপঞ্জিতে যুক্ত হলো নতুন বাংলা বর্ষ ১৪২৮। গতকাল বাংলার চিরায়ত উৎসব চৈত্রসংক্রান্তি শেষে আজ নতুন র্সূয উদিত হলো নতুন বছরের পয়গাম নিয়ে। জানাচ্ছে নতুনের আবাহন।

আমাদের সব সংকীর্ণতা, কূপমণ্ডূকতা পরিহার করে উদারনৈতিক জীবনব্যবস্থা গড় তুলতে উদ্বুদ্ধ করে পয়লা বৈশাখ। আমাদের মনের সব ক্লেদ, কালিমা দূর করে নতুন উদ্যমে বাঁচার অনুপ্রেরণা দেয়। পয়লা বৈশাখে বাঙালিয়ানা নতুন করে প্রাণ পায়, উজ্জীবিত হয়।

বাঙালির একটি সার্বজনীন লোকউৎসব পহলো বৈশাখে আনন্দঘন পরিবেশে বরণ করে নেওয়া হয় নতুন বছরকে। কল্যাণ ও নতুন জীবনের প্রতীক নববর্ষ অতীতের ভুলত্রুটি ও ব্যর্থতার গ্লানি ভুলে নতুন করে সুখ-শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনায় আমাদের উদ্দীপ্ত করে।

আমরা আশা করি আজকের নতুন ভোরের প্রথম আলো রাঙিয়ে দেবে নতুন স্বপ্ন, প্রত্যাশা আর সম্ভাবনাকে। করোনাভাইরাসমুক্ত নতুন বাংলাদেশের প্রত্যাশা নিয়ে নতুন বছরকে বরণ করে নেবে সব বাঙালি।

আজ একই সঙ্গে শুরু হলো ১৪৪২ হিজরি সনের পবিত্র রমজান মাস। গত রাত থেকেই শুরু হয় রোজার আনুষ্ঠানিকতা। এশার নামাজের পর তারাবি পড়েন রোজাদাররা। শেষ রাতে সেহেরি খেয়ে রোজা রেখেছেন তারা।

করোনা মহামারির কারণে অনেকটা ঘরবন্দি অবস্থায় এবার শুরু হলো রোজা। গতবারও এই করোনার হানার মধ্যে রোজার সিয়াম সাধনা করেছে মুসলিম জাতি। এবার আজ থেকে সর্বাত্মক লকডাউন শুরু হয়েছে। ফলে ওয়াক্তের নামাজসহ তারাবির জামাতে ২০ জনের বেশি মুসল্লির অংশগ্রহণে রয়েছে নিষেধাজ্ঞা। গতবারের মতোই সাধারণ মুসল্লিরা তারাবিতে অংশ নিতে পারছেন না। মহামারি ঠেকানোর এই যুদ্ধে আমাদের জিতবে হবে। আল্লাহ আমাদের ধৈর্য ও শক্তি দিন।

ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভের একটি রোজা। প্রত্যেক প্রাপ্তবয়স্ক মুমিনের ওপর রমজানের এক মাসের রোজা ফরজ। কোরআন-হাদিসে রোজার অনেক ফজিলতের কথা উল্লেখ আছে। ইফতার, তারাবি, সেহেরি, ইতেকাফ- রোজাসংশ্লিষ্ট এসব ইবাদতের বিশেষ তাৎপর্য রয়েছে। প্রত্যেকটি ইবাদতের বিশেষ ফজিলতের কথাও কোরআন-হাদিসে উল্লেখ আছে। আল্লাহ আমাদের এই সিয়াম সাধনা সফলভাবে পূরণ করার তৌফিক দান করুন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *