আজ বিশ্বকাপ খেলতে ওমান যাবে বাংলাদেশ দল

খেলাধুলা

ডেস্ক রিপোর্ট: প্রাথমিক পর্ব শুরু ১৭ অক্টোবর, ক্যালেন্ডারের পাতা উল্টে হিসেব করলে এখনো বাকি দুই সপ্তাহ; কিন্তু টিম বাংলাদেশ এই ১৪ দিন আগেই যাবে ওমান। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রাথমিক পর্বের সত্যিকার প্রস্তুতিটাও হবে ওমানেই।

আর সে লক্ষ্যে আজ ৩ অক্টোবর রাতে শুরু হচ্ছে টাইগারদের বিশ্বকাপ যাত্রা। রোববার রাত ১০টা নাগাদ চার্টার্ড ফ্লাইটে করে ওমানের রাজধানী মাসকাটের উদ্দেশ্যে আকাশে উড়বে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল।

করোনা নিয়ম মেনেই দেশ ছাড়ার আগে গতকাল কোভিড টেস্ট হয়েছে পুরো দলের। শনিবার রাত ১১টা পর্যন্ত মেইলে সবার কোভিড টেস্টের রিপোর্ট হাতে না আসায় বিসিবি প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী জাগো নিউজকে আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করতে পারেননি।

তবে কোভিড টেস্ট যে হাসপাতাল থেকে করা হয়েছে, তাদের কাছ থেকে মৌখিকভাবে জেনেই বলেছেন, সবাই নেগেটিভ। কাজেই ধরেই নেয়া যায়, দেশ ছাড়ার আগে ১৫ ক্রিকেটার, ২ জন রিজার্ভ ক্রিকেটার, নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন, লজিস্টিক ম্যানেজার সাব্বির খান, মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম, প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী, ম্যাসেজম্যান সোহেল ও সাপোর্র্টিং স্টাফ সবাই নেগেটিভ। তাই রোববার আর কারো বিমানে উড়তে কোন সমস্যা নেই। সব কিছু ঠিক থাকলে রোববার রাতেই সবার একসঙ্গে হবে ওমান যাত্রা।

সাকিব আর মোস্তাফিজ আইপিএল খেলায় ব্যস্ত। দেশে যারা আছেন তারা ব্যক্তিগত পর্যায়ে অনুশীলন করেছেন। তবে দলগত অনুশীলন বা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সত্যিকার প্রস্তুতি শুরু হয়নি এখনো। সেটা ওমান গিয়েই হবে।

আগামী ৪ অক্টোবর বিশ্রাম। ৫ অক্টোবর মঙ্গলবার থেকে ওমানে এক সপ্তাহের প্র্যাকটিস। তারপর ওমান ‘এ‘ দলের সাথে একটি প্রস্তুতি ম্যাচও হবে। আর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরুর আগে আইসিসির বেঁধে দেয়া দুটি অফিসিয়াল প্র্যাকটিস ম্যাচও খেলার সুযোগ পাবে টাইগাররা।

নিজ নিজ দেশে অবস্থানরত হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো, ব্যাটিং কোচ অ্যাশওয়েল প্রিন্স, পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসন, স্পিন কোচ রঙ্গনা হেরাথ, ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুক, ফিজিও আর ট্রেনার সবাই ছুটি শেষে দলের সাথে যোগ দেবেন ওমানে। সেখানেই ৫ অক্টোবর শুরু মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বাহিনীর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আনুষ্ঠানিক অনুশীলন।

অবশ্য তার আগে শেষ ৮/১০ দিন রিয়াদ, লিটন, সৌম্য, মুশফিক, সোহান, আফিফ, তাসকিনরা নিজেদের ঝালিয়ে নিয়েছেন মিরপুরে। শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ব্যক্তিগত উদ্যোগে অনেকেই অনুশীলন করেছেন। এর মধ্যে সোহান, তাসকিন ও আফিফরা ওমরাহও করে এসেছেন।

মাসকাট পৌঁছার ৪৮ ঘণ্টা পর সবাই মিলে লক্ষ্য ও পরিকল্পনা এঁটে ওমানের মাঠ ও পিচের সাথে মানিয়ে নেয়ার পর্ব শুরু হবে।

আগামী ৬ অক্টোবর বিসিবি নির্বাচন। মূলতঃ ওই নির্বাচনকে সামনে রেখে এবং দীর্ঘ ৫ সপ্তাহর বেশি সময় ধরে জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকার বাধ্যতামূলক দায় মেনে আসলে দলের সাথে বোর্ডের কোন শীর্ষ কর্মকর্তা যেতে রাজি হননি। তার অর্থ বাংলাদেশের বিশ্বকাপ দলে নেই কোন বোর্ড পরিচালক। টিম লিডার বা টিম ম্যানেজার- কোন পদেই বোর্ড কর্মকর্তাদের কেউ নেই।

জাতীয় দল পরিচর্য্যা ও তত্বাবধানের দায়িত্বে থাকা ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটি প্রধান আকরাম খান জাগো নিউজকে জানিয়েছেন, তিনিসহ বোর্ডের বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা বা পরিচালক নির্বাচন শেষে যাবেন। তবে কেউই কোন পদ পদবি নিয়ে নয়। যে যার মত ওমান ও দুবাই যাবেন।

ক্রিকেট অপসের ম্যানেজার সাব্বির খান লজিস্টিক ম্যানেজার হিসেবে যাবেন ওমানে। মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমামও শুরু থেকেই দলের সঙ্গী হবেন।

এর বাইরে ডাক্তার দেবাশীষ চৌধুরী নিশ্চিত করেছেন তিনিও টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বহরে থাকছেন। সঙ্গে নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমনও আজই দলের সঙ্গে ওমান যাচ্ছেন ।

পারিবারিক কারণে চট্টগ্রামে অবস্থানরত প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু এখন আর যাবেন না। তিনি দুবাইতে মূল পর্বে দলের সঙ্গী হবেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *