আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ছাড়লেন মোহাম্মদ আমির!

খেলাধুলা

খেলাধুলা ডেস্ক :  ভক্ত-সমর্থকদের হতবাক করে দিয়ে বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেন পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ আমির। টেস্ট থেকে আগেভাগে বিদায় নেওয়ার কারণে বহু প্রশ্নের মুখোমুখি হয়েছেন। এসবের উত্তর কয়েকবার দিতে হয়েছিল পাকিস্তানি পেসারকে। বাঁহাতি এই পেসার বলেছেন, পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) বর্তমান ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে কাজ করতে পারবেন না তিনি। আর তাই ‘মানসিক নির্যাতনে’ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ছাড়লেন আমির।চলে যাওয়াই হবে তার জন্য সঠিক সিদ্ধান্ত। শিগগিরই এ নিয়ে বিস্তারিত জানানোর আশ্বাস দিয়েছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে আমিরকে বলতে দেখা গেছে, ‘সত্যি কথা বলতে, আমি মনে করি না এই ম্যানেজমেন্টের অধীনে ক্রিকেট খেলতে পারবো। আমি ক্রিকেট ছেড়ে দিচ্ছি, এখনকার জন্য। আমি মানসিকভাবে নির্যাতিত হয়েছি। আর পারছি না। ২০১০ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত আমি এসব যথেষ্ট দেখেছি। আমাকে বারবার শুনতে হয়েছে যে পিসিবি আমার পেছনে অনেক বিনিয়োগ করেছে। আমি শহীদ আফ্রিদির প্রতি কৃতজ্ঞ, যখন নিষেধাজ্ঞা থেকে ফিরলাম তখন তিনি আমাকে সুযোগ দিয়েছেন।’

আমির আরও যোগ করেন, ‘প্রত্যেকে তার দেশের জন্য খেলতে চায়। অথচ তারা বলেই যাচ্ছে, আমি নাকি বিশ্বজুড়ে অন্য লিগগুলো খেলার জন্য নাকি টেস্ট ক্রিকেট ছেড়েছি। বিপিএল দিয়ে আমি ফিরে এসেছি। যদি লিগে খেলার জন্য মরিয়া থাকতাম তাহলে আমি বলতে পারতাম যে পাকিস্তানের হয়ে আর খেলতে চাই না। প্রত্যেক ম্যাচে কেউ না কেউ বলছে আমির আমাদের জন্য সমস্যা। দুই দিনের মধ্যে আমি পাকিস্তান যাবো এবং একটি বিবৃতি দেবো।’

২০০৯ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শুরু। পরের বছর লর্ডসে স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে নিষিদ্ধ হন পাঁচ বছরের জন্য। ২০১৫ সালে শাস্তির মেয়াদ শেষ হলে পরের বছর নিউ জিল্যান্ড সফর দিয়ে জাতীয় দলে ফেরেন তিনি। তবে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে মন দিতে গত বছর টেস্টকে বিদায় বলেন। ৩৬ টেস্টে ১১৯ উইকেট নিয়েছিলেন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সব মিলিয়ে ১৪৭ ম্যাচে ২৫৯ উইকেট শিকার করেছেন তিনি।

নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে আসন্ন টি-টোয়েন্টি সিরিজের দল থেকেও বাদ পড়েন আমির। সবশেষ তাকে দেখা গেছে লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগে এবং গলে গ্ল্যাডিয়েটর্সের হয়ে খেলেছেন ফাইনাল। ১১ উইকেট পেলেও শিরোপার স্বাদ পাননি, হেরে গেছে জাফনা স্ট্যালিওন্সের কাছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *