‘আফগানিস্তানের বিশ্ববিদ্যালয়ে নিষিদ্ধ হবে মিশ্র ক্লাস’

আন্তর্জাতিক

ডেস্ক রিপোর্ট : গত ১৫ আগস্ট রাজধানী কাবুল দখলের মাধ্যমে আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নিয়েছে তালেবান। এরপর কেটে গেছে ১৫ দিন। তবে এখনও পর্যন্ত সরকার গঠন করতে পারেনি বিদ্রোহী সংগঠন।

ধারণা করা হচ্ছে, আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই তারা সরকার গঠন করবে। তবে তার আগে কয়েকজন নতুন ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রীর নাম ঘোষণা করেছে তালেবান।

তাদের মধ্যে একজন হলেন ভারপ্রাপ্ত উচ্চ শিক্ষামন্ত্রী আবদুল বাকি হাক্কানি।

তিনি রবিবার জানিয়েছেন, নতুন আইনের অধীন আফগানিস্তানের নারীরা বিশ্ববিদ্যালয়ে যেতে ও পড়াশোনা করতে পারবেন। তবে এক্ষত্রে শরিয়াহ আইন অনুযায়ী মিশ্র ক্লাস নিষিদ্ধ হবে। অর্থাৎ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছেলেমেয়ে একসঙ্গে পড়তে বা ক্লাস করতে পারবে না।

আবদুল বাকি হাক্কানি বলেন, আফগানিস্তানের মানুষ শরিয়াহ আইনের আলোকে মিশ্র নরনারীর পরিবেশ ছাড়া নিরাপদে তাদের উচ্চশিক্ষা অব্যাহত রাখতে পারবেন।

তালেবানের ভারপ্রাপ্ত উচ্চ শিক্ষামন্ত্রী বলেন, তারা তাদের ইসলামিক, জাতীয় ও ঐতিহাসিক মূল্যবোধের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ একটি যুক্তিসংগত ও ইসলামিক পাঠ্যক্রম তৈরি করতে চান। অন্যদিকে অন্যান্য দেশের সঙ্গে প্রতিযোগিতাতেও সক্ষম হতে চান।

তালেবানের শরিয়াহ আইন অনুযায়ী, আফগানিস্তানে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষাব্যবস্থাতেও ছেলেমেয়েদের আলাদা করা হবে, যা অতিরক্ষণশীল আফগানিস্তানে আগে থেকেই প্রচলিত। সূত্র: ফ্রান্স২৪, এএফপি

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *