আফগান মুসলিম নয়, হিন্দু ও শিখদের আশ্রয় দেবে ভারত

আন্তর্জাতিক

ডেস্ক রিপোর্ট : আফগানিস্তান নিয়ে ভারতের অবস্থান স্পষ্ট করলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আফগান হিন্দু ও শিখদের ভারতে আশ্রয় দেওয়ার বিষয়টি সংশ্লিষ্ট দফতরগুলোকে দেখার নির্দেশনা দিয়েছেন ।

মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত নিরাপত্তা বিষয়ক ক্যাবিনেট কমিটির বৈঠকে মোদি আরও বলেন, আফগানিস্তানের সাধারণ মানুষ সাহায্য চাইলে তাদের পাশে দাঁড়াতে হবে।

মোদি বৈঠকে জানিয়েছেন, আফগানিস্তানে সংখ্যালঘু শিখ ও হিন্দুদের অবশ্যই আমাদের আশ্রয় দিতে হবে। যেসব আফগান ভাইবোনেরা সাহায্যের জন্য ভারতের দিকে তাকিয়ে আছেন, তাদেরও প্রয়োজনীয় সাহায্য পৌঁছে দিতে হবে।

সোমবার কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে কেবল আফগান হিন্দু ও শিখ শরণার্থীদের আশ্রয় দেওয়ার কথা বলা হয়েছিল। আশ্রয় দেওয়ার কথা না বললেও সাহায্যের প্রসঙ্গ তুলে মঙ্গলবার মোদি সেই বৃত্তে নিয়ে এলেন অন্য আফগান নাগরিকদেরও।

ভারতীয় এয়ার ফোর্সের বিশেষ ফ্লাইটে মঙ্গলবার আফগানিস্তান থেকে দেশে ফিরেছেন ১৪০ ভারতীয়। এর মধ্যে রয়েছেন আফগানিস্তানে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত রুদ্রেন্দ্র ট্যান্ডন, দূতাবাসের কর্মী, ইন্দো-তিব্বত সীমান্ত পুলিশ (আইটিবিপি) কর্মী ও সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিরা। ট্যান্ডন দেশে ফিরেই হাজির হয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা বিষয়ক ক্যাবিনেট বৈঠকে। সেখানে তিনি আফগানিস্তানের পরিস্থিতি নিয়ে সবিস্তারে জানিয়েছেন।

মঙ্গলবারের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর রাজধানীর বাইরে থাকায় মন্ত্রণালয়ের হয়ে বৈঠকে অংশ নেন পররাষ্ট্র সচিব। এছাড়াও বৈঠকে ছিলেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভালও। নিরাপত্তা বিষয়ক ক্যাবিনেট কমিটির বৈঠকে আফগানিস্তানের নিরাপত্তা পরিস্থিতি ও রাজনৈতিক অবস্থা নিয়ে সবিস্তার রিপোর্ট দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি আফগানিস্তান থেকে উদ্ধারকার্য কীভাবে চলছে, তা নিয়েও সবিস্তার জানানো হয়েছে ক্যাবিনটে কমিটিকে।

সূত্র : আনন্দবাজার

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *