আবারও ফিফা রেফারি হতে ঢাকায় জয়া

খেলাধুলা

ডেস্ক রিপোর্ট : দেশের একমাত্র নারী ফিফা রেফারি জয়া চাকমা। ফিফা রেফারি পরীক্ষা দিতে দেশে এসেছেন সাবেক জাতীয় নারী ফুটবলার। আজ বিকেলে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ফিফা রেফারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

আজ পুরুষ ফিফা রেফারি ও সহকারী রেফারির পরীক্ষাও অনুষ্ঠিত হবে। ১১ জন রেফারি ও ১৩ জন সহকারী রেফারি সব মিলিয়ে ২৪ জনের মতো প্রতিযোগী এই পরীক্ষায় অংশ নেবেন। এদের মধ্যে জয়া চাকমাই একমাত্র নারী প্রতিযোগী।

ফিফা সহকারী রেফারি সালমা আক্তার কিছু দিন আগে পরীক্ষা দিয়েছেন। এএফসি এলিট ক্যাটাগরিতে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকায় সালমাকে একটু আগেভাগেই পরীক্ষা নিয়েছে বাফুফের রেফারিজ বিভাগ। সালমা ফিটনেস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। রেফারিংয়ে ফিফা ব্যাজ পাওয়া না পাওয়া মূলত ফিটনেসের উপরই নির্ভর করে।

এএফসি এলিটে যাওয়ার সম্ভাবনা ছিল জয়ারও। তিনি উচ্চ শিক্ষায় ভারতে ছিলেন। বাফুফে ভারতে বিশেষ ব্যবস্থায় জয়ার পরীক্ষা আয়োজন করেছিল। তাৎক্ষণিক পরীক্ষা আয়োজন ও অনুশীলনে পর্যাপ্ত সময় না পাওয়ায় সেই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে পারেননি তিনি। ভারতে উত্তীর্ণ হলে এএফসি এলিটের পাশাপাশি আগামী বছরের জন্যও ফিফা ব্যাজ পেতেন জয়া।
সেই পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়ায় ভারতের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ছুটি নিয়ে দেশে এসে ফিফা পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হচ্ছে জয়াকে।

বাংলাদেশে পুরুষ ফিফা রেফারির কোটা পাঁচটি আর সহকারী সাতটি। আজকে ফিটনেস টেস্টে পুরুষরা পাশ করে কোটা পূরণ করলে পুনরায় পরীক্ষা নেবে না বাফুফে রেফারিজ কমিটি। কোটার বেশি ফিটনেস পরীক্ষায় পাশ করলে সেক্ষেত্রেও রেফারিজ কমিটি সিদ্ধান্ত নেবে।

নারী রেফারি একমাত্র জয়া চাকমা। জয়া আজ অকৃতকার্য হলেও সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহে আরেকবার পরীক্ষা দেয়ার সুযোগ পাবেন। ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বাফুফেকে ফিফার কাছে নাম পাঠাতে হবে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *