ইতালির উপকূলে নারী ও শিশুসহ ৫ শতাধিক অভিবাসনপ্রত্যাশী উদ্ধার

আন্তর্জাতিক

ডেস্ক রিপোর্ট : ইতালিতে একটি মাছ ধরার নৌকা থেকে ৫৩৯ অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড।

শনিবার (২৮ আগস্ট) লাম্পেদুসা দ্বীপে নৌকাটি থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধার হওয়া অভিবাসনপ্রত্যাশীদের মধ্যে নারী ও শিশু রয়েছেন। তাদের মধ্যে অনেকেই লিবিয়া থেকে ভূমধ্যসাগর পার হচ্ছিল।

ওইদিন আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি ও ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

সাম্প্রতিক সময়ে একদিনে এত সংখ্যক অভিবাসনপ্রত্যাশীদের উদ্ধার হওয়ার বড় একটি ঘটনা বলে জানিয়েছেন লাম্পেদুসার মেয়র তোতো মারতেলো। ইউরোপে যাওয়ার জন্য এই দ্বীপকেই বেছে নিয়ে থাকেন অভিবাসনপ্রত্যাশীরা।

রোববার (২৯ আগস্ট) এক প্রতিবেদনে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

বিবিসির প্রতিবেদনে জানা যায়, জরাজীর্ণ মাছ ধরার নৌকা থেকে উদ্ধার করা বিশাল সংখ্যক এই অভিবাসীদের মধ্যে নারী ও শিশু আছে। অভিবাসীদের মধ্যে অনেকেই উত্তর আফ্রিকার দেশ লিবিয়া থেকে ভূমধ্যসাগর পার হয়ে ইতালির উপকূলে পৌঁছেছিল। এদের মধ্যে অনেকেই ফের সহিংসতার চিহ্ন বহন করছে।

এদিকে প্রকৃত ঘটনা জানতে তদন্ত শুরু করেছেন ইতালির কর্মকর্তারা।

মানবাধিকার গ্রুপ এমএসএফের (ডক্টরস উইদআউট বর্ডারস) চিকিৎসক আলিদা সেরাচিয়েরি জানান, উদ্ধারকৃতদের মধ্যে কিছুসংখ্যক অভিবাসী লিবিয়ায় শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন। ইউরোপে প্রবেশের লক্ষ্যে নৌকার জন্য অপেক্ষার সময় তারা নির্যাতনের শিকার হন বলে জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে অবৈধপথে ইউরোপে পৌঁছাতে অভিবাসীরা সবচেয়ে বেশি যে স্থানটি ব্যবহার করে থাকে সেটি হচ্ছে ল্যামপেদুসা। চলতি বছরের মে মাসে কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে ১ হাজারেরও বেশি অভিবাসী এই দ্বীপে চলে আসছিল।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *