বুধবার ১৯শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৫ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ইনিংস থামল বাংলাদেশ, ২০২ রান করতে হবে পাকিস্তানকে

নভেম্বর ২৯, ২০২১

খেলাধুলা ডেস্ক : মুশফিকুর রহিম তার আলোচিত ‘আয়না তত্ত্ব’ নিয়ে কথা বলার এক ফাঁকে বলেছিলেন, ভালো করলে সবাই তালি দিবে আর খারাপ করলে গালি! কথাটি যে নেহায়েত কোন কথার কথা নয়, সেটির প্রমাণ পাওয়া গেল চলমান চট্টগ্রাম টেস্টে। ধারাবাহিকভাবে বাজে পারফরম্যান্সের জন্য পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড থেকে বাদ পড়েন লিটন কুমার দাস। তবে টেস্টে ফিরেই বাজিমাত করেছেন তিনি।

খারাপ করে বাদ পড়া, ফেরা, ভালো পারফর্ম করা- এগুলো তো ক্রিকেটেরই অংশ, তবে লিটনকে নিয়ে মাঠের বাইরে আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে মুণ্ডুপাত হয়েছে, সেটি বাড়াবাড়ি বললেও একেবারেই কম বলা হবে। এখন আবার সেই লিটনকে নিয়েই মাতোয়ারা গোটা দেশ। জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম উত্তাল, ‘লিটন, লিটন’ ধ্বনিতে। হবেই বা না কেন? তার ব্যাটে চেপেই যে টেস্টে প্রথমবার পাকিস্তান বধের খোঁজে বাংলাদেশ দল।

৬ উইকেট হারিয়ে ১৫৯ রান নিয়ে চতুর্থ দিনের দ্বিতীয় সেশনের খেলা শুরু করে বাংলাদেশ দল। রাব্বি মাথায় আঘাত পেয়ে ছিটকে যাওয়ায় দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ের সুযোগ পেয়েছেন নুরুল হাসান সোহান। চতুর্থ দিনের দ্বিতীয় সেশনে লিটন ৩২ ও সোহান শূন্য রানে অপরাজিত থেকে আবার ব্যাটিংয়ে নামেন।

বিরতি থেকে ফিরেই অ্যাপ্রোচে খানিকটা পরিবর্তন আনেন দুই ব্যাটসম্যান। আরও একটু আক্রমণাত্মক হয়ে লিডটা দ্রুত বাড়িয়ে নেওয়াই ছিল লক্ষ্য। তাতে কিছুটা সফলতাও মিলেছে বৈকি! দ্বিতীয় সেশনের প্রথম সাত ওভারে তুলে ফেলে ৩৩ রান। মাঝে লিটন ফিফটির দেখা পান লিটন। প্রথম ইনিংসের দারুণ সেঞ্চুরির পর দ্বিতীয় ইনিংসে লড়াকু এক ফিফটি তুলে নেন তিনি।

লিটনের অর্ধশতকের পর অতি আক্রমণাত্মক হয়েই উইকেট খোয়া গেল সোহানের। সাজিদ খানকে লং অন দিয়ে তুলে মারতে গিয়ে বাউন্ডারি লাইনে ধরা পড়েছেন বদলি হিসেবে নামা এই ব্যাটসম্যান। ফেরেন ১৫ রান করে। পরে ৪ রানের ব্যবধানে লিটন ৫৯ রান করে আর সাজিদ খানের শিকার হলে তাইজুল ইসলাম, আবুদ জায়েদ রাহি, এবাদতরা স্কোর বোর্ডে আর কোন রান যোগ করতে পারেননি। এতে ১৫৭ রানে অলআউট বাংলাদেশ।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
সর্বশেষ

করোনা শনাক্ত, হার ২৫.১১ শতাংশ

বিশেষ সংবাদদাতা প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের (কোভিড ১৯) নতুন ধরন ‌‘ওমিক্রন’র প্রভাবে দেশে সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। এ অবস্থায় গত ২৪ ঘণ্টায় (মঙ্গলবার

Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31