ওসমানীনগরে মানববন্ধন

সারাবাংলা

ওসমানীনগর (সিলেট) প্রতিনিধি:
শত শত বছর ধরে সিলেট অঞ্চলে বৈশাখ-জৈষ্ঠ্য মাসে আয়োজন করে মেয়ের শ্বশুরবাড়িতে আম-কাঁঠালসহ ফলাদি ও রমজানে ইফতারি দেওয়ার রেওয়াজ চলে আসছে। অনেকটা সময় আর্থিক কারণে মেয়ের বাড়ির লোকজনের কাছে তা ‘মরার উপর খাড়ার ঘা’ হয়ে দাঁড়ায়। প্রতিবছরই এ নিয়ে ঘটে নানা অপ্রীতিকর ঘটনা। চলতি বছর ওসমানীনগরের উসমানপুরে বাপের বাড়ি থেকে আসা ইফতার শ্বশুরবাড়ির লোকজনের কাছে মনঃপুত না হওয়ায় ওসমানীনগরে এক গৃহবধূ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। উপজেলা সাদিপুরে পছন্দসই ইফতার না দেওয়ায় শ্বশুর ও শালাকে মারধরের ঘটনা ঘটে। এসব ‘প্রথা’ বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন করেছে ওসমানীনগর উপজেলার সচেতন সমাজ। বুধবার দুপুরে স্থানীয় গোয়ালাবাজারে ‘ইফতারি ও আমকাঠালিকে না বলুন’-এই শ্লোগানে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। মানববন্ধনে বক্তারা এসব কারণে অসংখ্য গৃহবধূ নির্যাতনের শিকার হচ্ছে দাবি করে অবিলম্বে এই সামাজিক ব্যাধি বন্ধে প্রয়োজনে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানান। সমাজকর্মী আলিম রাজের পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য দেন উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি উজ্জ্বল ধর, সহ সভাপতি আবদুল মতিন, সহ সাধারণ সম্পাদক কবির আহমদ, আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল হামিদ, উপজেলা মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তা পারভীন, অ্যাডভোকেট অসীম কুমার দাস, হাফিজ রায়হান আহমদ, শিক্ষক অজয় কুমার দেব, হাবিব চৌধুরী, ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা সদস্য নেওয়া বেগম প্রমুখ। মানববন্ধনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সমাজ সেবক সুহেল আহমদ, কামরুজ্জামান কামরুল, এসএম সুহিন, কাজল মিয়া, মামুনুর রশিদ, ফুটবলার রতন আহমদ, আবদুল মুকিদ প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *