কটিয়াদীতে আচমকা ঝড়ে ফসলের ক্ষতি

সারাবাংলা

কটিয়াদী (কিশোরগঞ্জে) প্রতিনিধি:
কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে উপজেলায় কালবৈশাখী ঝড়ে বোরো ধানের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। গতকাল বিকালে উপজেলার বিভিন্ন প্রান্তে ঝড়ো হাওয়া ও বৃষ্টি শুরু হয়। আর এতেই বোরো ধানের শীষ নষ্ট হয়ে গেছে ও কোন কোন জমির ধান মাটির সঙ্গে মিশে গেছে। ফলে ভাঁজ পড়েছে কৃষকের কপালে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, আচমকা ঝড়ে উপজেলার বিঘার পর বিঘা জমির ফসল একবারে মাটির সঙ্গে মিশে গেছে।দমকা বাতাসে বোরো ধানের শীষ পুড়ে নষ্ট হয়ে গেছে। গাছ থেকে ঝরে পড়েছে সজনে, আম, লিচুর ফুল ও গুটি। বিশেষ করে উপজেলার করগাঁও, চান্দপুর, মুমুরদয়িা ইউনিয়নের হাওরের বোরো ধানের বেশি ক্ষতি হয়েছে। কালবৈশাখী ঝড়ের গরম বাতাসে সোনালী ধান পুড়ে সাদা ধূসর রূপ ধারণ করেছে। ফসল তুলতে না পারলে কিভাবে সংসার চলবে সে চিন্তাই দিশেহারা কৃষক। উপজেলার মুমুরদিয়া ইউনিয়নের কৃষক আসাদ মিয়া জানান, আমি এক বিঘা জমিতে ধান চাষ করেছিল। ঝড়ে তার প্রায় ৬০ শতাংশ জমির ধান নষ্ট হয়ে গেছে।ফলে এ বছর উৎপাদন খরচ আর উঠবে না। তিনি আরও বলনে,‘শুধু আমারই নয়, একই অবস্থা হাওররে সকল কৃষকের।’ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. মুকশদেুল হক জানান, কালবৈশাখী ঝড়ের গরম বাতাসে ধানের শীষের পরাগায়ন বিঘ্নিত হয়ে ও মাটিতে শুয়ে পড়ে উপজেলার ২৩০০ হেক্টর বোরো ধান জমি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *