কটিয়াদীতে ঢিলেঢালা লকডাউন

সারাবাংলা

কেউ স্বাস্থ্যবিধি মানছে না
ছিদ্দিক মিয়া, কটিয়াদী থেকে:
কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে পালিত হচ্চে ঢিলেঢালা ভাবে লকডাউনে।মানছেনা কেউ করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকার ঘোষিত লকডাউন কটিয়াদী উপজেলার সাধারন মানুষ।প্রতিদিন সকাল থেকে বিধি নিষেধ অমান্য করে গণপরিবহন চলছে ও দোকানপাটও রয়েছে খোলা।স্বাস্থ্যবিধিও মানছেনা অনেকে।এ রকম পরিস্থিতি চিত্র দেখা গেছে উপজেলা জুড়ে।আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর লোকজনকে দেখলেই বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে দোকানের সাটার।আবার মোবাইল টিমের বহর চলে গেলেই সাটার খুলছে ব্যবসায়ীরা।লকডাউনকে কেন্দ্র করে সোমবার সকাল থেকে বাজারের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর তোড়জোর লক্ষ্য করা গেলেও পরে কিছুটা শিথিল থাকায় যত্রতত্র লোক সমাগম,যানবাহন চলাচল ও দোকানপাট খোলা লক্ষ্য করা যায়।সরেজমিনে গিয়ে,থানা মোড়,হাসপাতাল রোড,উপজেলা রোড়,কটিয়াদী বাসস্ট্যান্ড,কলেজ রোড,পুরাতনবাজার সহ বিভিন্ন ইউনিয়নের বাজার গুলোতে ঘুরে দেখা যায়,চায়ের দোকানগুলোতে মানুষের ব্যাপক ভীড়।মার্কেটগুলোতে সামাজীক দৃরত্ব না রেখে কেনাকাটা এবং ব্যাংক গুলোতে টাকা তুলছেন সর্ব শ্রেনীর ক্রেতা ও গ্রাহকরা।
পথচারীদের কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন,মাস্ক পকেটে আছে।বেশি ভিড় দেখলেই পড়ি।আমরা আগে কখনও মাস্ক ব্যবহার করেনি। করোনা আসাতে মাস্ক ব্যবহার করতে হচ্চে।
স্থানীয় ভ্যানচালক বিপুল রায় বলেন,‘ঘর থেকে বের না হওয়ার কথা শুনেছি। কিন্তু পেটের দায়ে ভ্যান নিয়ে ঘর থেকে বের হয়েছি। দেখি কোনো যাত্রী পাই কি না?
কটিয়াদী মডেল থানার ওসি এসএম শাহাদাত হোসেন বলেন,পুলিশ প্রতিটি পয়েন্টে গুরুত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করছেন।গতকাল থেকে আজ আরও কঠোর অবস্থানে রয়েছি আমরা।যাঁরা কথা শুনছে না,তাঁদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’আমাদের সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। করোনা মোকাবিলায় আমরা উপজেলাকে আমাদের বিশেষ নজরদারিতে রেখেছি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *