করোনার ঝুঁকি নিয়ে মানুষের পাশে সখীপুর থানা পুলিশ

সারাবাংলা

মাহমুদুল হাসান রিমন, সখিপুর থেকে:
চলমান করোনা পরিস্থিতিতে নিরাপদ থাকতে সবাই যেখানে বাসা-বাড়িতে অবস্থান করছেন। সেখানে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন টাঙ্গাইলের সখীপুর থানা পুলিশ। কঠোর বিধি-নিষেধের চতুর্থ দিন গতকাল সোমবার উপজেলার কয়েকটি চেক পোস্টে সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নেতৃত্বে মোটরসাইকেল নিয়ে বিশেষ মহড়া দিতে দেখা গেছে। গত ২৩ জুলাই থেকে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে দেশজুড়ে। এই সময়ে করোনার সংক্রমণ রোধে স্ব স্ব নিরাপত্তায় জনগণকে নিজ নিজ অবস্থানে বিশেষ করে বাসা-বাড়িতে থাকতে বলা হয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে। বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে শপিংমল, গার্মেন্টস, কলকারখানা, গণপরিবহন, রেস্টুরেন্টসহ বিভিন্ন ধরনের বিনোদনকেন্দ্র ও সব সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। সেবাখাতের সঙ্গে সংশি¬ষ্ট এবং জরুরি খাদ্য, ওষুধ ও নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য এর আওতামুক্ত। দেশের সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এবং জনগণ যেন অহেতুক বাসা-বাড়ি থেকে বের না হন সে বিষয়টি নিশ্চিত করতে কাজ করছে পুলিশ সদস্যরা। পাশাপাাশি মাঠে আছে উপজেলা প্রশাসন, সামরিক বাহিনীর সদস্যরাও। সরাসরি মাঠ থেকে কাজ করছেন গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভ বলে আখ্যায়িত গণমাধ্যম কর্মীরাও। সখীপুর থানার উপ-পরিদর্শক ফয়সাল আহমেদ বলেন, মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করাই আমাদের মূল উদ্দেশ্য। করোনাকালীন সময়ে আমরা মৃত্যু ঝুঁকিতে থেকেও সাধারণ মানুষকে ঝুঁকিমুক্ত রাখতে পারছি এটাই পরম পাওয়া। সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একে সাইদুল হক ভূঁইয়া বলেন, সবাই জানেন যে, এই দায়িত্ব পালনে আছে ঝুঁকি, আছে খোদ মহামারি করোনায় আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও। তবুও ব্যক্তি স্বার্থ আর নিরাপত্তার চেয়ে মানবিক আর পেশার দায়িত্বকেই বেছে নিয়েছি। জীবনের ঝুঁকির মধ্যেই সিদ্ধান্ত নিয়েছি পেশাগত দায়িত্ব পালনের। ঝুঁকি আছে তাও কাজ করে যেতে হবে। আমাদের নিরাপত্তার জন্য সচেতনতা তো আছেই সর্বোপরি মহান আল্লাহর উপর ভরসা রাখি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *