করোনায় মারা গেলেন সাবেক সাংসদ আফাজ উদ্দিন

রাজনীতি

ডেস্ক ডেস্ক রিপোর্ট : স্ত্রীর মৃত্যুর ১০ দিন পর করোনায় মারা গেলেন কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আফাজ উদ্দিন আহমেদ (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন)। শনিবার দিবাগত রাত ১ টা ৪০ মিনিটে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

তার ছোট ছেলে দৌলতপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট এজাজ আহমেদ মামুন এ খবর নিশ্চিত করেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৫ বছর। তিনি তিন ছেলে, চার মেয়ে ও নাতি-নাতনিসহ আত্মীয়-স্বজন এবং অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

এর আগে, আফাজ উদ্দিনের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ৮ জুলাই সকালে মৃত্যুবরণ করেন। উল্লেখ্য, দৌলতপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে আফাজ উদ্দিন আহমেদের রয়েছে বর্ণাঢ্য ইতিহাস। তিনি দীর্ঘ প্রায় ৩৫ বছর একাধারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

বিকল্প নেতৃত্ব গড়ে না ওঠায় মৃত্যুর আগ পর্যন্ত এখানকার আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন তিনি। পরিচ্ছন্ন ইমেজের কারণে নিজ দলের বাইরেও সবার কাছে ছিলেন গ্রহণযোগ্য রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। আফাজ উদ্দিন আহমেদ এরশাদ সরকারের আমলে দ্বিতীয় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ২০০৮ সালের নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসন থেকে মহাজোট মনোনীত প্রার্থী হয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *