কসবায় পুলিশি বাধায় পণ্ড যুবদলের আনন্দ মিছিল

সারাবাংলা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় উপজেলা ও পৌর যুবদলের নতুন আহ্বায়ক কমিটির আনন্দ মিছিল পুলিশের বাঁধায় পণ্ড হয়ে গেছে। দুই গ্রুপের সংঘর্ষের আশংকায় মিছিলটি ছত্রভঙ্গ করে দেওয়া হয় বলে জানায় পুলিশ। সোমবার সকালে উপজেলা সদরের অনন্তপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, কসবা উপজেলা ও পৌর যুবদলের নতুন আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন দেওয়ায় উপজেলার সব ইউনিয়নের যুবদল ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের নিয়ে সকালে একটি আনন্দ মিছিল বের করেন উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক মাসুদুল হক ভূইয়া। মিছিলটি বিনাউটি ইউনিয়নের অনন্তপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে থেকে বের করে কিছুদূর যাওয়ার পর পুলিশ তাতে বাধা দেয়। এসময় পুলিশের সঙ্গে মিছিলকারীদের ধাক্কাধাক্কি ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে মিছিলটি পণ্ড হয়ে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক সিরাজুল হক ইমুকে আটক করেছে।
কসবা উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক মাসুদুল হক ভূইয়া বলেন, নতুন কমিটি গঠন করায় আমরা নেতাকর্মী নিয়ে আনন্দ মিছিল বের করি। পুলিশ বিনা উস্কানিতে আমাদের শান্তিপূর্ণ মিছিলে বাধা দিয়েছে। পুলিশ আমাদের এক কর্মীকে ধরে নিয়ে গেছে এবং বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়েছে। তিনি এঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের দাবি করে আটককৃত সিরাজুল ইসলাম ইমুকে ছেড়ে দেওয়ার দাবি জানান।
কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. অরুপ পাল জানান, সংঘর্ষে কেউ আহত হয়ে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসা নিয়েছে এমন জানা নেই। কসবা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলমগীর ভূইয়া জানান, অনুমতি ছাড়াই তারা এ আনন্দ মিছিলের নামে জন সমাগম করে। এছাড়া যুবদলের পদধারী ও পদ বঞ্চিতদের মধ্যে উত্তেজনা চলতে থাকায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ বাধা দিয়ে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ ঘটনায় কেউ আহত হয়নি। একজনকে আটক করা হয়েছে। উল্লেখ্য, সম্প্রতি বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ব্যক্তিগত সহকারী আবদুর রহমান সানির বড় ভাই কবির আহাম্মদের অনুসারী যুবদলের নেতাকর্মীদের মাধ্যমে এককভাবে উপজেলা যুবদল ও পৌর যুবদল নামে দুটি পকেট কমিটি ঘোষনা করা হয়। এ কমিটি বাতিলের দাবীতে এর আগে গত ১৮ সেপ্টেম্বর গত বছরে ঘোষিত যুবদলের কমিটির নেতাকর্মী ও সমর্থকরা সংবাদ সম্মেলন ও ঝাড়ু মিছিলসহ বিক্ষোভ কর্মসূচী করে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *