কাউখালীতে নির্বাচনী সহিংসতা এড়াতে দুই ইউনিয়নে সিসি ক্যামেরা

সারাবাংলা

রফিকুল ইসলাম রফিক, কাউখালী থেকে
সহিংসতা, হামলা, মামলা, গ্রেফতার আতংকে কাউখালীতে ৩য় ধাপে দুটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৮ নভেম্বর। নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই নিরাপত্তা নিয়ে ভোটারা শঙ্কিত হচ্ছে। প্রশাসন ইউনিয়ন ২টিকে সিসি ক্যামেরা দিয়ে নিরাপত্তা চাদরে ঢেকে দিয়েছেন। গত মঙ্গলবার কাউখালী থানা পুলিশ চিরাপাড়া পারসাতুরিয়া ও সয়না রঘুনাথপুর ইউনিয়ন দুটির গুরুত্বপূর্ন এলাকায় সিসি ক্যামেরা ও দুটি অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প বসিয়ে পুলিশের কঠোর নজরদারিতে করছে। ইতো মধ্যে ইউনিয়ন দুইটিতে সংঘর্ষেও ঘটনা ঘটায় সাদা পোশাকধারি পুলিশ, ডিবি পুলিশ সহ বিভিন্ন আইন শৃংখলা বাহিনী টহল দিচ্ছে। এ নির্বাচনে ১নং সয়না রঘুনাথপুর ইউনিয়নে বহিরাগত ও প্রভাবশালীদের দিয়ে ভোটারদের উপর চাপ সৃষ্টি করা, সংঘর্ষ এবং টান টান উত্তেজনা বিরাজ করায় গত সোমবার এলাকাবাসী পোলেরহাট বাজারে সূষ্ঠ ভোটের দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।
দুইটি ইউনিয়নের স¦তন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীরা অভিযোগ করেন প্রভাবশালী প্রার্থীরা বহিরাগত লোক দিয়ে সাধারন ভোটারদের উপর চাপ সৃষ্টি করে জোর পূর্বক ভোট আদায়করার চেষ্টা চালাচ্ছে। এদিকে গত শনিবার ৪নং চিরাপাড়া ইউনিয়নে সাইকেল মার্কা ও নৌকা মার্কার সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে বহু লোক আহত হয়। এ নিয়ে ভোটারা ভোট দেয়া নিয়ে শংঙ্কিত রয়েছেন। দিন যতই ঘনিয়ে আসছে এলাকা উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ কারণে আইনশৃঙ্গলা রক্ষা বাহীনি সতর্ক দৃষ্টি রাখছে বলে দাবি করে ওসি বনি আমিন। ভোটারা নিরাপত্তা নিয়ে আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন বালে অভিযোগ উঠলে বরিশাল পুলিশের ডিআইজি আখতারুজ্জামানের উদ্যোগে উক্ত দুটি ইউনিয়নে গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় সিসি ক্যামেরা বসিয়ে শান্তিপূর্ণ পরিবেশের নির্বাচন নিশ্চিত করার ঘোষণা দিয়েছে কাউখালী থানা পুলিশ।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *