কাওরানবাজারে অভিযান ও জরিমানার ভয়ে আলু বিক্রি বন্ধ

জাতীয়

নিজস্ব প্রতিবেদক: পাইকারি বাজারে প্রশাসনের অভিযান ও জরিমানার ভয়ে আলু বিক্রি বন্ধ রেখেছেন ব্যবসায়ীরা। মঙ্গলবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারের পাইকারি আলু ব্যবসায়ীরা দোকান বন্ধ রেখেছেন।

সংশ্লিষ্টরা জানান, নানা অজুহাতে হঠাৎ করেই দ্বিগুণ বেড়েছে আলুর দাম। এ নিয়ে সরকারের পক্ষ থেকে খুচরা পর্যায়ে সর্বোচ্চ ৩০ টাকা দাম নির্ধারণ করে দেয়া হলেও তা আমলে নিচ্ছেন না ব্যবসায়ীরা।

পাইকারি ও খুচরা বাজারে বাড়তি ৫৫ থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যটি। দাম নিয়ন্ত্রণে মাঠে নামে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর ও প্রশাসনের একাধিক টিম। তাই অভিযান ও জরিমানার প্রতিবাদে ব্যবসায়ীদের আলু বেচাকেনা বন্ধ রেখেছেন।

তবে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, আলুর দাম পুনর্নির্ধারণের জন্য কোল্ড স্টোরেজের মালিকরা সরকারের সংশ্লিষ্ট দফতরের সঙ্গে বৈঠক করবে। এ জন্য তারা আলু বিক্রি বন্ধ রেখেছেন। আজ বিকেল ৩টায় বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

কারওরান বাজারের পাইকারি আলু ব্যবসায়ী মো. হাফিজ বলেন, প্রতিদিন প্রশাসনের লোকজন অভিযানে এসে আমাদের বিরুদ্ধে জরিমানা করছে। অযথা জরিমানা দিয়ে ব্যবসা করা আমাদের পক্ষে সম্ভব না। তাই এখন থেকে কত পর্যন্ত এইভাবে অভিযান চলবে আমরা ব্যবসা করব না।

আজ পাইকারি বাজারে আলুর দাম ছিল ৪২ থেকে ৪৩ টাকা বলে জানান পাইকারি এ ব্যবসায়ী।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের উপপরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার জানান, সরকারের নির্দেশনা বিভিন্ন জেলার আলুর গুদামের মালিক, পাইকারি ব্যবসায়ী ও খুচরা বিক্রেতাদের কার সঙ্গে মতবিনিময় করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, ব্যবসা বন্ধ রাখার মতো কোনো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি বরং দাম স্থিতিশীল রাখতে তাদের বিভিন্ন নির্দেশনাসহ পরামর্শ দেয়া হয়েছে। আর যাদের জরিমানা করা হয়েছে তারা মূলত ক্রয় রশিদসহ আইন অনুযায়ী কাগজপত্র দেখাতে পারেনি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *