কাবুলে ফাঁকা গুলি ছুড়ে তালেবানের ‘স্বাধীনতা’ উদযাপন

আন্তর্জাতিক লিড ১

ডেস্ক রিপোর্ট : আফগানিস্তানে মার্কিন অধ্যায়ের সমাপ্তি হয়েছে। সর্বশেষ মার্কিন সেনা ছেড়ে গেছে কাবুল বিমানবন্দর। এরপরই বিজয়ের আনন্দে মেতেছে তালেবান। স্বয়ংক্রিয় রাইফেল থেকে ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে, বাজি ফাটিয়ে ‘পূর্ণ স্বাধীনতার’ উদযাপনে মাতে গোষ্ঠীটির সদস্যরা।

তালেবান আগেই জানিয়েছিল, ৩১ আগস্টের মধ্যেই আফগানিস্তানের মাটি ছাড়তে হবে মার্কিন বাহিনীকে। এর মধ্যেই বিদেশি নাগরিক ও সহযোগী আফগানদের সরিয়ে নেওয়ার কাজ সম্পন্ন করতে হবে। সময়সীমা কোনো ভাবেই বাড়ানো হবে না।

তালেবানের দেওয়া সেই সময়সীমা শেষ হচ্ছে মঙ্গলবার। তবে এর কিছুসময় আগেই অর্থাৎ সোমবার গভীর রাতেই কাবুল বিমানবন্দর থেকে চূড়ান্তভাবে বিদায় নিলো মার্কিন সেনারা।

বার্তাসংস্থা রয়টার্স বলছে, যুক্তরাষ্ট্রের শেষ সামরিক বিমান আফগান মাটি ছাড়তেই উল্লাসে মেতে ওঠে তালেবান সদস্যরা। সেই মুহূর্তকে উপভোগ করতে বাজি ফাটিয়ে এবং বন্দুক থেকে ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে ‘মুক্তির উল্লাসে’ মাতে তারা। এরপরই এই দিনটিকে ‘পূর্ণ স্বাধীনতা’ দিবস হিসেবে ঘোষণা করে তালেবান।

সোমবার রাতেই তালেবানের মুখপাত্র কারি ইউসুফ আলজাজিরাকে বলেন, ‘সর্বশেষ মার্কিন সেনাটিও কাবুল ছেড়ে চলে গেছে এবং আমাদের দেশ পূর্ণ স্বাধীনতা অর্জন করেছে।’

তালেবানের প্রধান মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ মঙ্গলবার বলেন, ‘মার্কিন বাহিনী কাবুল বিমানবন্দর ছেড়েছে। আর এর মধ্য দিয়ে আমাদের দেশ পূর্ণ স্বাধীনতা লাভ করেছে।’

আফগানিস্তানে প্রায় ২০ বছর ধরে চলা এই যুদ্ধে প্রায় ২৫০০ মার্কিন সেনা নিহত হয়েছে। নিহত সাধারণ আফগান নাগরিকের সংখ্যা প্রায় ২ লাখ ৪০ হাজার। দীর্ঘ দুই দশকের এই যুদ্ধে ২ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *