কালকিনিতে পরিবেশ বান্ধব অটো ইটভাটা

সারাবাংলা

কালকিনি (মাদারীপুর) প্রতিনিধি:
দেশে কাঠ পুড়িয়ে ইটভাটা তৈরীতে পরিবেশ দুষনের অন্যতম কারন হয়ে দাঁড়িয়েছে বর্তমানে। ফলে মানুষের স্বাস্থ্য ঝুকি চরম আকারে পৌছেণে। এবং কি বিভিন্ন রোগ জীবানুতে ভুগতে হচ্ছে সাধারন মানুষদের। অরদিকে এই উন্নয়নশীল দেশে ক্রমাগতভাবে চলা নির্মান কাজে নির্মান সামগ্রী চাহিদা বেড়েই চলছে। তাহলে কী হবে, এ ক্ষেত্রে সমাধান হতে পারে কি। এ কথা মাথায় রেখে উপজেলার ফাসিয়াতলাহাটে নির্মান করা হয়েছে একটি পরিবেশ বান্ধব অটো ইটভাটা। এ ইটভাটা এই প্রথম কালকিনি উপজেলায় প্রতিষ্ঠিত করেন উপজেলার আলীনগর এলাকার কালিগঞ্জ গ্রামের দুই বেকার শিক্ষত তরুন মোঃ তুহিন(বিবিএ, এমবিএ) ও আলীআজগর(বিএসসি, ইঞ্জিনিয়ারিং)। অভিশপ্ত বেকার জীবন ঘোচাতে তারা দুই বন্ধু মিলে ৬ মাস আগে প্রায় অর্ধকোটি টাকা ব্যয়ে এ অটো ইটভাটা নির্মান করেন। এখানে ২০ জন শ্রমিক নিয়মিত কাজ করছেন এই অটোইটভাটায়। আধুনিক প্রযুক্তিতে এখানে শুধু পাথর দিয়ে মেশিনের মাধ্যমে ইট তৈরী করা হয়ে থাকে। নেই কোন পরিবেশ বিপর্যস্ত হওয়ার মত কাজ। তাদের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন উপজেলার অনেকেই। অপরদিকে পরিবেশ বান্ধব এই ইটভাটা এখন উপজেলায় সর্বোচ্চই এখন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিনত হয়েছে । তরুন যুবক মোঃ তুহিন তাদের সফলতার কথা বলতে গিয়ে জানান, ক্রমবর্ধমান নগরায়নের ফলে সারা দেশেই প্রচুর পাকা দালান নির্মিত হচ্ছে। সার্বিক সুবিবেচনায় মানুষ এখন, কাঠ ও টিনের ঘরের বদলে সিমেন্টের ঘর তৈরী করছে। ফলে বেড়ে গেছে ইটের চাহিদা। অপরদিকে বিভিন্ন ইটভাটায় পুড়ছে কাঠ। তাই বনাঞ্চল উজাড় হয়ে যাচ্ছে। জনস্বাস্থ্যের দিকে লক্ষ রেখে আমরা দুইজনে মিলে এই পরিবেশ বান্ধব অটো ইটভাটা নির্মান করেছি। আমরা নিজে-নিজে আত্নকর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছি। যাতে করে আমাদের দেখাদেখি উৎসাহিত হয়ে অন্যরাও এগিয়ে আসেন। আমরা এখন স্বাবলম্ভী হয়েছি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *