কিশোরীর কীটনাশক পানে অপমৃত্যু : পারিবারিক অবহেলাই দায়ী

সারাবাংলা

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি :
নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় রামারবাগ এলাকায় সুমি (১৫) নামে এক কিশোরী কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করেছে। পুলিশ বলছে, পারিবারিক অর্থাভাব এবং অবহেলায় এই কিশোরী এরকম কাজ করতে বাধ্য হয়েছে। গত ২৮ ডিসেম্বর দিবাগত রাতের এই ঘটনায় ফতুল্লা মডেল থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের হয়েছে যার মামলা নং ৯৯। পারিবারিক সূত্র হতে জানা যায়, রামারবাগ এলাকার মেট্রো গার্মেন্টস এলাকার পরিবার নিয়ে সুমি ভাড়া থাকত। তার বাবা ছিল না। মা দ্বিতীয় বিয়ে করেন। মায়ের দ্বিতীয় স্বামীর সাথেও মেয়েটির সর্ম্পক ভালো ছিল না। ২৭ ডিসেম্বর রাতে গোপনে সুমি কীটনাশক পান করেন। রাতে ব্যাপারটি জেনে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে সেখান থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকায় পাঠানো হলেও টাকার অভাবে নেওয়া হয়নি। ভোরে অবস্থার অবনতি হলে নারায়ণগঞ্জ সদর জেনারেল হাসপাতালের নেওয়ার পথে মারা যায় মেয়েটি। ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের ওসি আসলাম হোসেন জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা গ্রহণ করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *