কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগে বাবা-ছেলে গ্রেফতার

সারাবাংলা

গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুরে ধর্ষণ মামলায় সৎভাই ও বাবাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ধর্ষণের শিকার ওই স্কুলছাত্রী (১৬) ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পরলে বুধবার (৩ ফেব্রুয়ারি) তার বাবা জুবায়ের ও সৎভাই নাসিরের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

গ্রেপ্তাররা হলেন— সিলেটের জৈন্তাপুর থানার গুয়াবাড়ি এলাকার মৃত আদালত খানের ছেলে জুবায়ের খান (৪০) ও জুবায়েরের ছেলে নাসির উদ্দিন (১৮)।

ওসি আবু সিদ্দিক জানান, প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় দ্বিতীয় বিয়ে করেন জুবায়ের। দ্বিতীয় বিয়ের পর সেই স্ত্রীকে নিয়ে তিনি গাজীপুর সিটি করপোরেশনের কোনাবাড়ির হরিণাচালা এলাকায় এসে ভাড়া বাসায় থেকে এলাকায় রাজমিস্ত্রির সহকারী হিসেবে কাজ করতেন।

গত ১৫ জুন রাতে পরিবারের সদস্যদের অনুপস্থিতিতে জুবায়ের ভয়ভীতি দেখিয়ে তার কিশোরী মেয়েকে ধর্ষণ করে। পরবর্তীতে জুবায়ের তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে।

এদিকে, সৎভাই নাসিরও ওই কিশোরীকে বিভিন্ন সময়ে একাধিক বার ধর্ষণ করে। বাবা ও সৎভাইয়ের ধর্ষণের শিকার কিশোরীটি একসময়  অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। বর্তমানে কিশোরীটি ৭ মাসের অন্তসত্ত্বা। এরপর বাবা-ভাইয়ের ধর্ষণের শিকার কিশোরী এ বিষয়টি তার মাকে জানান।

ওসি আবু সিদ্দিক আরও  জানান, এ ব্যাপারে কিশোরীটি বাদী হয়ে বুধবার (৩ ফেব্রুয়ারি) ওই দুইজনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ মামলার অভিযুক্ত ধর্ষক জুবায়ের ও ছেলে নাসিরকে গ্রেপ্তার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তাররা ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। এ ব‌্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *