কি কারণে পাকিস্তান নিচ্ছে রাজ কাপুর ও দিলীপ কুমারের পৈতৃক ভিটে

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক : প্রয়াত কিংবদন্তি অভিনেতা রাজ কাপুর ও দিলীপ কুমারের পৈতৃক ভিটে কিনে নিচ্ছে পাকিস্তানের রাজ্য সরকার।

পেশোয়ার শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত জরাজীর্ণ বাড়ি দুটি ধ্বংসের মুখে পড়েছে। এজন্য খাইবার পাখতুনখাওয়া রাজ্য সরকার বাড়ি দুটি অধিগ্রহণ করে ঐতিহাসিক ভবন হিসেবে সংরক্ষণ করার পরিকল্পনা করেছে। এনডিটিভি এ খবর প্রকাশ করেছে।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে—রাজ কাপুর ও দিলীপ কুমারের পৈতৃক এ বাড়ি দুটির বর্তমান বাজার মূল্য কত হতে পারে, তা স্থির করতে পেশওয়ার ডেপুটি কমিশনারের কাছে সরকারি চিঠি পাঠানো হয়েছে। দেশভাগের আগে এই দুই বাড়িতে জন্ম নেন বলিউড সিনেমার কিংবদন্তি অভিনেতা রাজ কাপুর ও দিলীপ কুমার।

রাজ কাপুরের বাড়িটি ‘কাপুর হাভেলি’ নামে স্থানীয়ভাবে পরিচিত। কিসসা খাওয়ানি বাজারে এটি অবস্থিত। ১৯১৮-১৯২২ সালের মধ্যে রাজ কাপুরের দাদা দেওয়ান বশেশ্বরনাথ বাড়িটি নির্মাণ করেন। পাকিস্তানের প্রাদেশিক সরকার বাড়িটিকে আগেই জাতীয় হেরিটেজ হিসেবে ঘোষণা করেছিল।

একই এলাকায় অবস্থিত দিলীপ কুমারের পৈতৃক ভিটে। এ বাড়ির বয়স ১০০ বছরের বেশি। ভগ্নদশা বাড়িটি ২০১৪ সালে নওয়াজ শরিফ সরকার জাতীয় হেরিটেজ হিসেবে ঘোষণা করে।

বাড়ি দুটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ স্থানে অবস্থিত। বাণিজ্যিক ভবন নির্মাণের জন্য এর আগে বাড়ি দুটি ভেঙে ফেলার চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু দুটি বাড়ির ঐতিহাসিক গুরুত্ব বিচার করে তা আটকে দেয় পাকিস্তানের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ।

‘কাপুর হাভেলি’-এর বর্তমান মালিক আলী কাদের। পাকিস্তান সরকারের কাছে তিনি বাড়িটির দাম চেয়েছেন ২০০ কোটি রুপি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *