কুয়াকাটায় ১৫ দিনের পর্যটক নিষেধাজ্ঞা, হোটেল-মোটেল বন্ধ

জাতীয় সারাবাংলা

ডেস্ক রিপোর্ট: করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ ও সংক্রমন প্রতিরোধে সরকারের নির্দেশনা মেনে পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটার সকল হোটেল-মোটেল দুই সপ্তাহের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে পটুয়াখালী জেলা প্রশাসন। একই সঙ্গে কুয়াকাটায় সর্বস্তরের পর্যটকদের আগমনে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। বৃহস্পতিবার (১এপ্রিল) থেকে আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর থাকবে।

বুধবার রাত থেকে কুয়াকাটা পৌরশহরের বিভিন্ন পয়েন্টে স্থানীয় প্রশাসন ও ট্যুরিস্ট পুলিশ ভিন্ন ভিন্ন ভাবে মাইকিং করে নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি প্রচার করেছে।

এছাড়া কুয়াকাটা আবাসিক হোটেল খান প্যালেসে মহিপুর থানা ও কুয়াকাটা ট্যুরিস্ট পুলিশের উদ্যোগে স্থানীয় হোটেল মোটেল ওনার্স এ্যাসোসিয়েশনের সদস্য এবং অন্যান্য ব্যবসায়ী-সুশীল সমাজ প্রতিনিধিদের নিয়ে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ বিষয়ে আলচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন কুয়াকাটা পৌর মেয়র মো. আনোয়ার হাওলাদার, মহিপুর থানা ওসি মো. মানিরুজ্জামান, ট্যুরিস্ট পুলিশ ইন্সপেক্টর মো. মজিানুর রহমান প্রমূখ। সভায় অন্যান্য ব্যবসায়ীদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এবং স্বাস্থ্য বিধি মেনে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান শর্ত সাপেক্ষে খোলার অনুরোধ করা হয়। স্থানীয় বিভিন্ন হোটেল মোটেল মালিক এবং স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

মহিপুর থানার ওসি মো. মনিরুজ্জামান বলেন, দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আগত পর্যটকদের মাধ্যমে অত্র অঞ্চলে যাতে করোনা সংক্রমন বৃদ্ধি না পায় সে লক্ষ্যে জেলা প্রশাসনের নির্দেশনা বাস্তবায়নে মহিপুর থানা পুলিশ সচেষ্ট রয়েছে। ইতোমধ্যে ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা এবং সকল ব্যবসায়ীদের নিয়ে সচেতনতামুলক সভা সম্পন্ন করা হয়েছে।

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু হাসনাত মো. শহিদুল হক জানান, দেশব্যাপী করোনার সংক্রমন বৃদ্ধি পাওয়ায় সরকারের নির্দেশনায় পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটার সকল হোটেল-মোটেল বন্ধ এবং দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পর্যটকদের আগমনের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে জেলা প্রশাসন। সে লক্ষ্যে কুয়াকাটা ট্যুরিস্ট পুলিশ এবং মহিপুর থানা পুলিশ যৌথ ভাবে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় কাজ করবেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *