কেরানীগঞ্জে ভাতিজার অত্যাচারে ভিটে ছাড়া চাচার পরিবার

সারাবাংলা

কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি
ঢাকার কেরানীগঞ্জে আপন ভাতিজা পলাশ ও তার বাহিনীর অত্যাচারে ঘর ছাড়া চাচা রাজহরি সরকার ও তার পরিবার। পলাশ বাহিনীর ভয়ে স্ত্রী ও দুই কন্যা সন্তান নিয়ে বাপ-দাদার বসতভিটা ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন চাচা। ঘটনাটি উপজেলার বাস্তা ইউনিয়নের গোয়ালখালী গ্রামের। এঘটনায় গতকাল বুধবার বেলা ১১টায় কেরানীগঞ্জ প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে নিজের অসহায়ত্বের কথা তুলে ধরেন ভুক্তভোগী হিন্দু পরিবারটি। এ ব্যাপারে হিন্দু সমাজ পঞ্চায়েত ও গ্রাম্য আদালতে আপস মিমাংসা হলেও বাড়িতে যেতে পারছেন না তারা। পলাশ বাহিনীর অত্যাচারে থানায় মামলা করতে গেলেও অজ্ঞাত কারণে মামলা নিচ্ছে না পুলিশ। ছয় বছরে বেশ কয়েকটি হামলার ঘটনায় শুধু দুইটি সাধারণ ডায়েরি নিয়েই দায় সেরেছে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা-পুলিশ।
বুক্তভোগী রাজহরি সরকার জানান, ন্যায় বিচারের জন্য ছয় বছর যাবৎ হিন্দু সমাজ পঞ্চায়েত ও গ্রাম্য আদালত থেকে শুরু করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দ্বারে দ্বারে ঘুরে কোন প্রতিকার পাইনি। উপায়ন্ত না দেখে স্ত্রী ও দুই কন্যা সন্তান নিয়ে আজ আপনাদের কাছে হাজির হয়েছি। আমি ন্যায় বিচারের জন্য আপনাদের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি। অন্যথায় স্ত্রী ও দুই মেয়ে নিয়ে আত্মহত্যার করা ছাড়া আর কোন উপায় থাকবে না। এ বিষয়ে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহজামান বলেন, পরিবারটি কখনো মামলা করতে থানায় আসেনি। ঘটনা সত্য হলে অবশ্যই মামলা নেওয়া হবে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *