কোটালীপাড়ায় ইভটিজিং ॥ ৪ বখাটের বিরুদ্ধে মামলা

সারাবাংলা

কোটালীপাড়া (গোপালগঞ্জ) প্রতিনিধি
গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় কলেজ পড়ুয়া এক ছাত্রীকে উত্যক্ত করায় ৪ বখাটের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। গত সোমবার ভুক্তভোগী কলেজ ছাত্রী বাদী হয়ে বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চার জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন।
মামলার বিবরনী ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার শুয়াগ্রামের ওই ছাত্রী পার্শ্ববর্তী আগৈলঝাড়া উপজেলার বাগদা মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও কলেজে পড়াশোনা করেন। কলেজে যাতায়াত করার রাস্তায় বিভিন্ন সময়ে একই গ্রামের বখাটে হাসান হাওলাদার (১৯), সজীব বালী (২৫), রেদোয়ান শেখ (২০), রবিউল ফরাজী (২২) ওই ছাত্রীকে উদ্দেশ্য করে অশ্লীন মন্তব্য করে।
ভুক্তভোগী ছাত্রী এসবের প্রতিবাদ করলে আসামিরা আরও বেশি বেপোরোয়া হয়ে ওঠে। গত ১১ তারিখে ওই ছাত্রী কলেজে অস্যাইনমেন্ট দিয়ে বাড়িতে ফেরার পথে আসামীরা তার পথ রোধ করে দাড়ায় এবং ওই ছাত্রীর মুখ চেপে ধরে তার শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে শ্লীতহানির চেষ্টা করে। আসামিদের সঙ্গে ধস্তাধস্তির পর্যায়ে ওই ছাত্রী চিৎকার দিতে সক্ষম হলে চিৎকার শুনে গোলাম ফারুক তাজ, মান্নান শেখ, পারভিন আক্তার ঘটনাস্থলে ছুটে এসে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে।
ভুক্তভোগী কলেজ ছাত্রী বলেন, আমাকে অনেকদিন থেকেই রাস্তাঘাটে উত্যক্ত করে আসামীরা। ঘটনার দিন কোনভাবে রক্ষা পেলেও ওরা আমাকে হুমকী দেয় যে আমি যদি কারো কাছে ওদের নাম ফাঁস করি তাহলে আমাকে খুন করে ফেলবে। প্রশাসনের কাছে আমার আবেদন, আমি সুষ্ঠু পরিবেশে পড়াশোনা করতে চাই এবং একই সঙ্গে আসামীদের কঠিন শাস্তির দাবি করি। যাহাতে ভবিষ্যতে আমার মত আর কোন মেয়ে ইভটিজিং এর স্বীকার না হয়।
এবিষয়ে মামলার আসামী মোঃ হাসান হাওলাদারের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, পুর্ব শত্রুতার জের ধরে ইভটিজিং মামলা দিয়ে আমাদের ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে, বিষয়টি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *