খালি বাড়িতে গৃহকর্মীকে ধর্ষণ, অত:পর হত্যার হুমকি

সারাবাংলা

ডেস্ক রিপোর্ট: শেরপুরের শ্রীবরর্দীতে পাঁচ সন্তানের জননী বিধবা এক গৃহকর্মীকে (৪০) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে গৃহকর্তার বিরুদ্ধে। অভিযুক্তের নাম জাকির হোসেন জিকু (৪৫)। জিকু ওই উপজেলার হালুয়াহাটি এলাকার মৃত হাজী শরাফত আলীর ছেলে।

গত বৃহস্পতিবার ওই নারী বাদী হয়ে শেরপুর শিশু ও নারী নির্যাতন দমন আদালতে মামলা করেন। আজ রবিবার বিচারক মো. আখতারুজ্জান পিবিআইকে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ওই নারীর স্বামী দুই বছর আগে হাতির আক্রমণে মারা যান। সন্তানদের মুখে দুমোঠো খাবার তুলে দেওয়ার জন্য  তিনি জিকুর বাসায় কাজ করতেন। গত ৯ জানুয়ারি দুপুরের দিকে প্রথমবার ওই নারীকে বাড়িতে একা পেয়ে গৃহকর্তা ধর্ষণ করেন।

ভিকটিমের অভিযোগ, জিকুর স্ত্রী বাসায় না থাকলে জিকু তাকে কুপ্রস্তাব দিতেন। ঘটনার দিন জিকু ভিকটিমের বাড়িতে আসেন। বাড়িতে তখন কোনো মানুষ ছিল না। অভিযুক্ত নারীকে একা পেয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখান জিকু এবং ধর্ষণ করেন। পরবর্তীতে জিকু ফুসলিয়ে তাকে আরও কয়েকদিন ধর্ষণ করেন। একপর্যায়ে ভিকটিম অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন। অভিযুক্ত ওষুধ দিয়ে বাচ্চা নষ্ট করে ফেলেন। বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে জিকু ও নারীর সম্পর্ক চলতেই থাকে। কিন্তু জিকু সর্বশেষ ওই নারীকে বিয়ে করেননি। বিষয়টি স্থানীয় গণ্যমান্যদের জানানো হয়। বিয়ের জন্য চাপ প্রয়োগ করা হয়। এরপর তিনি মামলা করেন। এখন মামলা তুলে নিতে তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হচ্ছে।

করোনায় আদালত বন্ধ থাকার কারণে মামলা দিতে বিলম্ব হয়েছে বলে আজরিতে লেখা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *