গিনেস বুকে নাম তুলতে চান রুবেল

বিনোদন

ডেস্ক রিপোর্ট : ঢাকাই চলচ্চিত্রের অন্যতম অ্যাকশন হিরো রুবেল। অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি একজন মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষক। ১৯৮৬ সালে ২৪ বছর বয়সে শহিদুল ইসলাম খোকনের পরিচালনায় ‘লড়াকু’ সিনেমায় অভিনয়ের মধ্যদিয়ে তিনি চলচ্চিত্রে অভিষেক করেন। ঢালিউডে ইতোমধ্যে ৩৫ বছর কাটিয়ে ফেলেছেন রুবেল। এবার তিনি নাম তুলতে চান গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ডে।

সম্প্রতি মাছরাঙা টেলিভিশনের ঈদের বিশেষ অনুষ্ঠান ‘রাঙা সকাল’-এ অতিথি হিসেবে হাজির হয়ে এই ইচ্ছার কথা জানান কুংফু হিরো। অনুষ্ঠানটি ঈদের ষষ্ঠ দিন সকাল ৭টা থেকে ৯টা পর্যন্দ দেখানো হবে। কিন্তু ৩৫ বছরের ক্যারিয়ারে কী এমন করেছেন রুবেল? যার কারণে গিনেস বুক ওয়ার্ল্ডে নাম তোলার মতো এত বড় একটি পদক্ষেপ নেয়ার কথা জানালেন।

অভিনেতার ভাষ্য মতে, ৩৫ বছরের চলচ্চিত্র জীবনে তিনি ২৩০টির মতো চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। শুধু তাই নয়, এখন পর্যন্ত মোট ৯৭ জন নায়িকার বিপরীতে তিনি অভিনয় করেছেন বলে জানিয়েছেন রুবেল নিজেই। এই সংখ্যাটি খুব শিগগিরই ১০০ পূর্ণ করবেন তিনি। এর পরই গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের জন্য আবেদন করবেন।

সারা দেশের মানুষ রুবেলকে নায়ক হিসেবে চিনলেও তিনি কিন্তু চলচ্চিত্রে রুবেল পা রেখেছিলেন প্লেব্যাক গায়ক হিসেবে। ‘জীবন নৌকা’ ছবিতে বড় ভাই সোহেল রানার জন্য প্রথম কণ্ঠ দেন তিনি। চার বছর নজরুল সংগীতে এবং সাড়ে চার বছর শাস্ত্রীয় সংগীতে তালিমও নিয়েছিলেন রুবেল। ব্যাডমিন্টন, ফুটবল এবং কারাতে চ্যাম্পিয়নশিপে জাতীয় পুরস্কারও পেয়েছেন তিনি।

তবে ভাগ্যে নায়ক হওয়ার কথা ছিল বলে একপর্যায়ে বড় পর্দায় পা রাখেন রুবেল। তার উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রের তালিকা করা অসম্ভব। বেশিরভাগ ছবিই সুপারহিট। ২৩০টির মধ্যে কয়টির নামই বা বলা যায়। অভিনয়ের পাশাপাশি রুবেলের আরও একটি বড় পরিচয় হলো, তিনি বেশ কিছু সিনেমা পরিচালনা ও প্রযোজনা করেছেন। সেখানেও দেখিয়েছেন মুন্সিয়ানা।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *