চাটখিলে প্রবাসীকে জিম্মি করে মুক্তিপণ দাবি

চাটখিলে প্রবাসীকে জিম্মি করে মুক্তিপণ দাবি

সারাবাংলা

চাটখিল (নোয়াখালী) প্রতিনিধি : নোয়াখালী জেলার চাটখিলে প্রবাসীকে জিম্মি করে মুক্তিপণ আদায়কারী আকাশ (২০), জনি (১৮) ও বাবু হোসেন (৩০) গত শুক্রবার বিকেলে নোয়াখালী জেলার আমলী আদালতের বিচারকের কাছে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। চাটখিল থানা পুলিশ গত বৃহস্পতিবার রাতে বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের এ ৩ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত প্রতারকরা হচ্ছে- চাটখিলের পশ্চিম সোসালিয়া গ্রামের দিলাজের বাড়ীর আমিন উল্লাহর ছেলে আকাশ, পার্শ্ববর্তী রামগঞ্জ উপজেলার আলীপুর গ্রামের বনি আমিনের ছেলে দিদার হোসেন জনি এবং একই গ্রামের হাফিজ পাটোয়ারীর ছেলে বাবু হোসেন।

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, সৌদি প্রবাসী চাটখিলের মর্য্যাদপাড়া গ্রামের এছাক মিয়ার ছেলে মাসুদ পাটোয়ারী গত ২৫ ডিসেম্বর চাটখিলে আসার সময় শহীদ জি, এম রুহুল আমিন সড়ক থেকে তাকে জোরপূর্বক একটি সিএনজিতে তুলে অপহরণ করে অজ্ঞাতস্থানে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে তাকে ইয়াবা দিয়ে নারীর সঙ্গে নগ্ন ছবি তুলে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। জিম্মি অবস্থায় মাসুদ তার আত্মীয় স্বজনকে মুঠোফোনে প্রতারক চক্রের বিকাশ নাম্বারে টাকা পাঠিয়ে তাকে উদ্ধার করার অনুরোধ করে। মাসুদের আত্মীয়স্বজন তাকে উদ্ধারের জন্য প্রতারকদের ৮টি বিকাশ নম্বরে ১ লাখ ৫৩ হাজার টাকা পাঠায়। টাকা পাওয়ার পর প্রতারক চক্রের সদস্যরা মাসুদকে দশঘরিয়া বাজারের পাশে ফেলে চলে যায়। আহত অবস্থায় স্থানীয় লোকজন মাসুদকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যায়। বাড়ীর লোকজন তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে। এঘটনায় চাটখিল থানায় মামলা হলে পুলিশ বিকাশ নম্বর সমূহ ট্রাকিং করে প্রতারকদের চিহ্নিত করে গ্রেফতার করে। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে গ্রেফতারকৃত প্রতারকদের আদালতের মাধ্যমে জেলে পাঠানো হয়।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *