চুয়াডাঙ্গায় প্রবাসীর স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা, আটক ১

সারাবাংলা

ডেস্ক রিপোর্ট : চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার নতুন যাদবপুরে জেসমিন আক্তার ওরফে আয়না খাতুন (৩৮) নামে এক নারীকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার (০৭ সেপ্টেম্বর) রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একজনকে আটক করেছে।

জেসমিন আক্তার ওরফে আয়না যাদবপুর গ্রামের কুয়েত প্রবাসী হাবিবুর রহমান হাবিবের স্ত্রী।

নিহত জেসমিনের বোন সাথী খাতুন বলেন, আমার দুলাভাই কুয়েত প্রবাসী। বোন ওর শাশুড়ির সঙ্গে বাড়িতে থাকত। সপ্তাহ খানেক আগে বোনের শাশুড়ি মারা যায়। এরপর থেকে সে একাই বাড়িতে থাকত।

তিনি আরও বলেন, আমার বোনের দুই সন্তান। মেয়ে তাসমিনের বিয়ে হয়েছে। আট বছরের শিশু তাজমির মায়ের সঙ্গেই থাকত। এখন মাকে হারিয়ে শিশুটি শুধু কান্না করছে।

মেয়ে তাসমিন বলেন, আমার মাকে কয়েকদিন ধরে মোবাইলে কেউ বিরক্ত করছিল শুনেছি। মঙ্গলবার সিম পরিবর্তন করে মা। কি কারণে আমার মাকে হত্যা করেছে আমি জানি না। আমি আমার মায়ের হত্যার বিচার চাই।

স্থানীয়দের ধারণা, বাড়ির প্রাচীর পার হয়ে বাথরুমের ভেন্টিলেটর ভেঙে ঘরের মধ্যে ঢুকে এই হত্যাকাণ্ড চালানো হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জিহাদ খান বলেন, জেসমিন আক্তার নামে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। ঘটনাস্থল থেকে একটি চুরি, এক জোড়া হ্যান্ডগ্লোভস ও তিনটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একজনকে থানায় নেওয়া হয়েছে। অনেকগুলো সূত্র পাওয়া গেছে। খুব শিগগিরই হত্যাকারীকে আইনের আওতায় আনা হবে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *