ছাতকে কিশোরী ধর্ষণ, ধর্ষক ইয়াছিন গ্রেফতার

সারাবাংলা

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের ছাতকে নয় বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় সোমবার বিকেলে উপজেলার ছৈলা-আফজালাবাদ ইউনিয়নের বিনন্দপুর গ্রামের হাবিবুর রহমান মোস্তফার ছেলে ধর্ষক মো. ইয়াছিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর আগে সকালে ছাতক থানার এস আই আনোয়ার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

স্থানীয় ও ভিকটিম কিশোরীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ২৮ ডিসেম্বর সোমবার বিকেল ৫টার দিকে ধর্ষক মো: ইয়াছিন তার বাড়ির পাশের একটি পুকুরে পানি সেচ পাম্প চালু করতে পানি ঢেলে সহযোগীতা করার কথা বলে ভিকটিম কিশোরীকে নিয়ে যায়। প্রায় ঘন্টা খানেক পর ভিকটিম কিশোরী বাড়ীতে ফিরে তার মায়ের কাছে ধর্ষক মো: ইয়াছিন কতৃক ধর্ষণের ঘটনাটি জানান। সমাজিক মানহানীর কথা চিন্তাকরে বিষয়টি তাৎক্ষনিক কাউকে জানানো হয়নি। গতকাল রোববার ভিকটিম কিশোরীর অতিরিক্ত রক্তকরণ ও ব্যাথা অনুভব হলে তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওআইসিসি ইউনিটে ভর্তি করা হয়।

এ বিষয়ে ভিকটিম কিশোরীর পিতা. সাইদুল ইসলাম বলেন, ছাতক থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি। আমি হতদরিদ্র অসহায় এক পিতা। আমার কিশোরী মেয়ের জীবন যে ধংস করেছে তার ফাঁসি চাই। ছাতক থানার এসআই আনোয়ার বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। আসামী মো: ইয়াছিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ছাতক থানার ওসি শেখ নাজিম উদ্দিন গ্রেফতারে সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *