ছাতক থানায় হেফাজতের হামলা অজ্ঞাত আসামি ৯০০

সারাবাংলা

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:
নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁও এলাকার একটি রিসোর্ট হোটেলের ৫০১নং রুম থেকে হেফাজতের ইসলামের কেন্দ্রীয় নেতা মাওলানা মামুনুল হকসহ এক নারীকে আটকের জের ধরে সুনামগঞ্জের ছাতক থানায় হামলা চালিয়েছে স্থানীয় হেফাজতে ইসলামের উত্তেজিত নেতাকর্মীরা। গত শনিবার রাত ৯টায় এই হামলার ঘটনা ঘটে। এর আগে ছাতক পৌর শহরে বিক্ষোভ মিছিল করে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা। এঘটনায় ৯৪ জন এজহার নামীয় ৯০০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করা হয়। হামলায় ছাতক থানার পাঁচজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। থানার নিরাপত্তা রক্ষায় পুলিশ ১০৮ রাউন্ড সর্ট গান, ২৬ রাউন্ড টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে করেছে। হামলায় জড়িত সন্দেহে ৯ জনকে আটক করেছে পুলিশ। হামলার পরপরই ছাতক পৌর শহরে পুলিশের টহল জোরদার করা হয়েছে। রাতেই ছাতক থানা পরিদর্শন করেছেন সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, হেফাজতের ইসলামের কেন্দ্র্রীয় নেতা মাওলানা মামুনুল হককে নারায়নগঞ্জে আটক করা হয়েছে এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে ছাতক পৌর শহরে বিক্ষোভ মিছিল করে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মী ও অনুসারীরা। এক পর্যায়ে থানায় ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। ইট-পাথরের আঘাতে ৫ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন, রাকিব উদ্দিন, সাইদুল ইসলাম, দিলশাদ মিয়া, রবিউল আলম ও সুবল দাস। আহত পুলিশ সদস্যরা ছাতক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রে চিকিৎসা সেবা নিয়েছেন। হামলার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ছাতক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ নাজিম উদ্দিন বলেন, রাতে অর্তকিত কয়েকশ’ লোক থানায় ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেছে। এতে থানার পাঁচজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ২৬ রাউন্ড টিয়ারসেল ও ১০৮ রাউন্ড সটগান নিক্ষেপ করা হয়েছে। হামলার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ৯ জনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে এবং পুলিশের টহল জোরদার করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *