ছাত্রী ধর্ষণ : রায়পুরা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতির বিরুদ্ধে মামলা

সারাবাংলা

নরসিংদী প্রতিনিধি : দশম শ্রেণীর ছাত্রীকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগে রায়পুরা থানায় রায়পুরা উপজেলার ছাত্রলীগ সভাপতি আসাদুল হক চৌধুরী শাকিলসহ দুই জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছে ধর্ষণের শিকার মেয়েটির বাবা। স্থানীয় ও ভিকটিমের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শাকিল মেয়ের সাথে প্রায় ৬ মাস যাবৎ প্রেম করে আসছিল। মেয়েটি বিয়ের প্রলোভন দিয়ে শাকিল তাকে গত বৃহস্পতিবার রাত ১০ টায় রায়পুরা উপজেলা রাজু অডিটরিয়ামে আসতে বলে। পরে অডিটরিয়ামের একটি কক্ষে মেয়েটিকে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। মেয়েটির আত্মচিৎকারে আশেপাশের লোকজন টের পেয়ে যাওয়ায় ধর্ষক পালিয়ে যায় এবং মেয়েটি ৯৯৯ ফোন করলে রায়পুরা থানার সেকেন্ড অফিসার দেব দুলাল তার সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
রায়পুরা উপজেলার আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আফজাল হোসাইন বলেন, আমি এই ঘটনা শুনেছি। শাকিল ছেলেটি খুবই বাজে। এর আগেও তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ আমি পেয়েছি। আমি এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানায় ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।
নরসিংদী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হাসিবুল হাসান মিন্টু জানান, অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে অবশ্যই তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ ব্যাপারে রায়পুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মহসিনুল কাদের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন এবং রায়পুরা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আসাদুল হক চৌধুরী শাকিলসহ দুই জনের বিরুদ্ধে শুক্রবার দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং ৩৫,তাং-২৩/১০/২০২০। আসামী এখনো পলাতক রয়েছে, তবে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *