https://www.dhakaprotidin.com/wp-content/uploads/2021/01/islam-minister-Dhaka-Protidin-ঢাকা-প্রতিদিন.jpg

জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণে আলেমদের ভূমিকা অপরিসীম : ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

জাতীয়

নিজস্ব প্রতিবেদক : সমাজের সর্বস্তরের মানুষের কাছে মসজিদের ইমাম-খতীব ও আলেম সমাজের গ্রহণযোগ্যতা প্রশ্নাতীত বলে মন্তব্য করেছেন, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান। তিনি আরও বলেন, ধর্মীয়, সামাজিক ও পারিবারিক অনেক বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে এদেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগোষ্ঠী মুসলমানরা মসজিদের ইমাম-খতীব ও আলেম সমাজের পরামর্শ ও নির্দেশনা গ্রহণ করে থাকেন। তাই সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদসহ অপরাধ নিয়ন্ত্রণে আলেমরা অপরিসীম ভূমিকা রাখতে পারেন।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) ইসলামিক ফাউন্ডেশন আগারগাঁওয়ে ইমাম প্রশিক্ষণ একাডেমি ও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশে কাউন্টার টেররিজম এবং আন্তর্জাতিক অপরাধ দমন ইউনিটের সহযোগিতায় আয়োজিত ‘Prevent Violent Extremism through Significant Religious Engagement’ শীর্ষক কর্মশালায় তিনি এ কথা বলেন।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক স্বার্থে কিছু স্বার্থান্বেষীচক্র সমাজের তরুণ ও যুব সমাজকে ধর্মের নামে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের পথে পরিচালিত করে থাকে। ধর্মের পর্যাপ্ত ও সঠিক জ্ঞান না থাকায় তারা বিভ্রান্ত হয়ে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ে। এর মাধ্যমে আমাদের পবিত্র ইসলাম ধর্মের দুর্নাম করে এবং সমাজ, রাষ্ট্র ও মানুষের ক্ষতি করে। সাধারণ নিরীহ ও নিরাপরাধ মানুষের জীবন বিপন্ন করে তোলে। তাই যুবসমাজকে ধর্মের সঠিক জ্ঞান দিয়ে দেশপ্রেমে উজ্জীবিত করে সমাজের মূলধারায় পরিচালিত করতে ইমাম, খতিব ও আলেম সমাজকে নিয়মিতভাবে জুমার খুতবাসহ বিভিন্ন বয়ানে সচেতনতামূলক আলোচনা অব্যাহত রাখতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদি কার্যক্রম ইসলামে সম্পূর্ণ নাজায়েজ ও হারাম। মানবতার ধ্বংস সাধন করে এমন কোন কাজ ইসলাম সমর্থন করে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতোমধ্যে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছেন। তাই, সমাজে ইসলামের প্রকৃত শিক্ষা সঠিক ভাবে তুলে ধরে তরুণ ও যুব সমাজকে সচেতন করতে ইমামদে ও আলেমদেরকে আরও সক্রিয় ভূমিকা পালন করতে হবে।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক আনিস মাহমুদের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব নুরুল ইসলাম। মূখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য উপস্থাপন করেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম এবং আন্তর্জাতিক অপরাধ দমন ইউনিটের অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *