জনবন্ধু লোকমান হোসেনের নবম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন

সারাবাংলা

বশির আহম্মেদ মোল্লা, ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি:
নরসিংদীতে জনবন্ধু সাবেক মেয়র লোকমান হোসেনের নবম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন উপলক্ষ্যে মাসব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শহীদ লোকমান স্মরণে সভায় বক্তব্য দিতে কান্নায় ভেঙে পড়েন মহিলা লীগের নেতাকর্মীরা। ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়ে নরসিংদী জেলার কয়েক শতাধিক নারী নেত্রীদের উপস্থিতিতে শুক্রবার বিকালে নরসিংদী আওয়ামী লীগ অফিসে এর আয়োজন করা হয়। নরসিংদী জেলা মহিলা লীগের সভাপতি সুমি সরকার (ফাতেমা) এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ইয়াছমিন সুলতানার পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন নরসিংদী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আব্দুল মতিন ভূইয়া। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন নরসিংদী জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক বিলকিস বেগম, জেলা মহিলা লীগ নেত্রী ফারহানা সরকার সোমা।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি আব্দুল মতিন ভুইয়া বলেন, জীবিত লোকমান এর চেয়ে মৃত্যু লোকমান অনেক শক্তিশালী। নরসিংদী জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ প্রতি বছরের ন্যায় এবারও কয়েক হাজার নারী-পুরুষ মিলে শহীদ লোকমান স্বরণে নানা কর্মসূচি পালন করেন। ১ নভেম্বর থেকে নরসিংদীর বিভিন্ন স্থানে যথাযোগ্য মর্যাদায় মাসব্যাপী কর্মসূচিগুলো পালন করা হচ্ছে। শহীদ লোকমানকে নিয়ে যে ভাবে নরসিংদীবাসী বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করছে তা ভুলে যাওয়ার মত না। মানুষ যুগ যুগ তাকে স্মরণ করবে। শিল্পমন্ত্রী অ্যাড. নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন এমপিসহ সব এমপি ও দলীয় নেতাকর্মী সঙ্গে নিয়ে রাষ্ট্রীয় ও সাংগঠনিক সব কর্মসূচি পালন করে জনবন্ধু মেয়র লোকমান ছোট ভাই নরসিংদী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মানবিক মেয়র আলহাজ্ব কামরুজ্জামান কামরুল। জনবন্ধু মেয়র লোকমানের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড নরসিংদীবাসী সহ দেশবাসী কোনদিন ভোলার মত না। তার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে কামরুল সহ তার পরিবার সাধারণ মানুষের কাজ করে যাচ্ছে। সামনে যত দিন আসবে লোকমানসহ কামরুলের জনপ্রিয়তা দিন দিন আরও বাড়বে। অপশক্তির সব ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে জনবন্ধু লোকমান স্মরণে এত কর্মসূচি পালন করে সারা দেশের মধ্যে নরসিংদীবাসী অন্য রকম দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। নরসিংদীসহ দেশবাসী দীর্ঘদিন যাবৎ লোকমান হত্যার বিচার চেয়ে আসছে। প্রিয় নেত্রী লোকমান পরিবারের অতি আপনজন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মাধ্যমে এ হত্যার করা হবে।
তিনি আরও বলেন, জীবিত লোকমানের চেয়ে মৃত্যু লোকমান অনেক শক্তিশালী। একটি ষড়যন্ত্রকারী চক্র লোকমান হোসেনকে হত্যা করে নরসিংদী আওয়ামী লীগকে ধ্বংস করতে চেয়েছিল তাদের স্বপন কোন দিন বাস্তবায়ন হবে না। শহীদ লোকমান হোসেন এর ভাই সৎ সাহসি মেধাবী বিচোক্ষন বঙ্গবন্ধুর আর্দশের সৈনিক নরসিংদী পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও মানবিক পৌর মেয়র আলহাজ্ব কামরুজ্জামান কামরুল তার সততা আর্দশ মেধা চিন্তা চেতনা যোগ্য সংগঠক হিসেবে শেখ হাসিনার নির্দেশে বর্তমান সরকারের উননয়ন ধারাকে অব্যহত রাখতে নরসিংদী শহরকে উন্নয়নের মায়াময় শহর হিসেবে সারা বিশে^র মধ্যে অন্য রকম নান্দনিক শহর প্রতিষ্টা করতে দিন রাত অকান্ত পরিশ্রম করে ব্যাপক উন্নয়ন কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। কামরুল তার সৎ সাহসিকতা মেধা শ্রম চিন্তা চেতনার উদার ভালবাসা সময় অর্থ দিয়ে যোগ্য পরিক্ষিত সংগঠক হিসেবে সকল শ্রমজীবি মানুষের পাশে দাড়িয়ে নরসিংদী আওয়ামীলীগকে ঐক্যবন্ধ করে বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করতে অবিরাম কাজ করে যাচ্ছে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে নরসিংদীর লকডাউন এলাকায় করোনা পরিস্থিতিতে কামরুল নিজের জীবন বাজি রেখে প্রচুর অর্থ ব্যয় করে ৫০ হাজার পরিবারের খাবার সহ নরসিংদী জেলায় কর্মরত ডাক্তার ও চিকিৎসা কর্মীদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। ডাক্তার ও চিকিৎসা কর্মীদের মনোবল বৃদ্ধিসহ রোগীদের সেবা দানকালে তাদের সুরক্ষায় ২ হাজার পিপিই (পার্সোনাল প্রোটেকটিভ ইকুইপমেন্ট) ও হ্যান্ড-স্যানিটাইজার বিতরণ করেন। নরসিংদী পৌর এলাকার জনগণের মাঝে ইতোপূর্বে ২৫ হাজার মাস্ক, ২৫ হাজার হ্যান্ড-স্যানিটাইজার ও ২৫ হাজার সাবান বিতরণ করেন। করোনা পরিস্থিতিতে এসব খাদ্য ও পণ্য সামগ্রী ব্যক্তিগত অর্থায়নে বিতরন করে নরসিংদী বাসীর অন্তরে মানবিক মেয়র হিসেবে স্থান করে নিয়েছে। এ সব মানব কল্যান ভাল কাজ করে সারা দেশের মধ্যে মানবিক মেয়র হিসেবে অন্য রকম দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন কামরুল। আগামী দিনে প্রিয় নেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দেশের মানুষের জন্য আরো ভাল কিছু করতে পারে তার জন্য দোয়া প্রার্থনা কামনা করছি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *