জালাল উদ্দিন হত্যাকাণ্ড হত্যার কারণ নিয়ে ধুম্রজাল

সারাবাংলা

ওমর ফারুক, রাজশাহী ব্যুরো
রাজশাহীর চারঘাটে ভ্যান চালককে উপর্যপুরি ছুরিকাঘাত করে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহত ভ্যান চালক রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার মেরামতপুর গ্রামের জাবেদ আলীর ছেলে জালাল উদ্দিন (৫৫)। গত শুক্রবার রাত সাতটার দিকে চারঘাট উপজেলার পশ্চিম বালিয়াডাঙ্গা তিন সতীনের মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। জানা যায়, ভ্যানচালক জালাল উদ্দিন ভ্যান চালিয়ে রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলেন। এ সময় তিনি চারঘাট উপজেলার পশ্চিম বালিয়াডাঙ্গা তিন সতীনের মোড় এলাকায় পৌঁছালে দুর্বৃত্তরা তার পথরোধ করে এলোপাথাড়ি শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাত করে। উপর্যপুরি ছুরিকাঘাতে শরীর থেকে প্রচুর রক্ষ বের হয়ে তিনি গুরুতর আহত হয়ে যান। তিনি আহত হয়ে পড়লে দুর্বৃত্তরা তাকে ঘটনাস্থলে ফেলে রেখে চলে যায়। পরে স্থানীয় এক যুবক তাকে রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখে চারঘাট উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যায়। হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান চারঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুমিত কুমার কুণ্ডু। তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে লাশের ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এঘটনায় নিহতের ছেলে মানিক বাদী হয়ে চারঘাট থানায় অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
এদিকে, কেন একজন ভ্যান চালককে এভাবে নৃশংসভাবে হত্যা করা হলো তা নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে ব্যাপক আলোচনার সৃষ্টি হয়েছে। তবে পুলিশের দাবি এটি পরিকল্পিত হত্যা হতে পারে। এর মাত্র ৩ /৪ দিন আগে একই ভ্যানচালককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। বিষয়টি রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। চারঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুমিত কুমার কুণ্ডু বলেন, পরিকল্পিতভাবে এ হত্যাকাণ্ড হতে পারে। বিষয়টি তদন্ত করা হয়েছে। অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে থানায় মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *