‘ঝুলন্ত তারসহ টেলিযোগাযোগ ট্রান্সমিশন সমস্যার নিরসন ক্রমান্বয়ে হবে’

জাতীয়

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিটিআরসি চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার রাজধানীর ঝুলন্ত তার সমস্যা নিরসন, এনটিটিএন ও আইএসপি অপারেটরদের পারস্পারিক সম্পর্ক উন্নয়ন, এনটিটিএন অপারেটরদের ট্যারিফ নির্ধারণ, বিদ্যমান নীতিমালা হালনাগাদকরণসহ টেলিযোগাযোগ ট্রান্সমিশন সেবায় যুগোপযোগী পরিবর্তনের আভাস দিয়েছেন।

সোমবার (২৮ ডিসেম্বর) বিকেলে কমিশনের প্রধান সম্মেলন কক্ষে ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড অপারেশন্স বিভাগ কর্তৃক আয়োজিত নেশনওয়াইড টেলিকমিউনিকেশন ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক (এনটিটিএন) অপারেটরদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এ খাতে বিদ্যমান সমস্যা সমাধানে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের বিষয়ে আশ্বস্ত করা হয়।

দেশে বর্তমানে সক্রিয় এনটিটিএন অপারেটর বিটিসিএল, বাংলাদেশ রেলওয়ে, পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ (পিজিসিবি), ফাইবার এট হোম লিমিটেড, সামিট কমিউনিকেশন লিমিটেড এবং বাহন লিমিটেডের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের ট্রান্সমিশন সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যা ও সমাধানের বিভিন্ন দিক উপস্থাপন করেন।

সভায় রাজধানীর ঝুলন্ত তার সমস্যা, এনটিটিএন সেবায় টেকসই মূল্য নির্ধারণ, বিটিআরসির অধীনস্থ সংশ্লিষ্ট লাইসেন্সধারীদের কার্যক্ষেত্র ও কার্যপরিধি নির্ধারণে গাইডলাইন হালনাগাদকরণ ও নিয়মিত মনিটরিং জোরদারের দাবি জানায় অপারেটররা।

বিটিআরসি জানায়, এনটিটিএনের ট্যারিফ নির্ধারণের জন্য ইতোমধ্যে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের উদ্যোগে গঠিত কমিটি কাজ করছে। তাই বিদ্যমান গাইডলাইন অনুযায়ী দায়িত্বশীলতার সঙ্গে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা এবং নির্ভরশীল অপারেটর ও লাইসেন্সধারীদের সঙ্গে সম্পর্ক বজায় রেখে কাজ করার আহ্বান জানানো হয়।

কমিশনের চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার বলেন, ‘আমি ক্রমান্বয়ে সকল অপারেটরদের নিয়ে বসব। তাদের সমস্যাগুলো চিহ্নিত করা হচ্ছে, কমিশন কর্তৃক ধাপে ধাপে সেগুলো চিহ্নিত করে সময়োপযোগী কার্যকরী সমাধান দেওয়া যাবে। আপনাদের সহযোগিতা পেলে আমি এ খাতটিকে যে অবস্থায় পেয়েছি, তার চেয়ে আরও উন্নত ধাপে নিয়ে যেতে পারব।’

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *