টাঙ্গাইলে পুলিশে চাকরির প্রলোভনে ১৭ লাখ টাকা আত্মসাৎ

সারাবাংলা

ইমরুল হাসান বাবু, টাঙ্গাইল থেকে
টাঙ্গাইলের সখিপুর উপজেলার মো. রফিকুল ইসলাম তালুকদার ওরফে লাভলু তালুকদার (৫৫) নামের এক ব্যক্তি পুলিশে চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ১৭’লাখ টাকা আত্মসাৎ করে লাপাত্তা হয়েছে। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী মো. আতিকুর রহমান বাদী হয়ে পুলিশ সুপার’র নিকট একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, টাঙ্গাইল সদর উপজেলার চর দূর্গাপুর গ্রামের হাবেল উদ্দিনের ছেলে আতিকুর রহমান শহরের পুরাতন বাসস্ট্যান্ডে একটি ওয়ার্কসপের ব্যবসা রয়েছে। ব্যবসায়িক সূত্র ধরে সখিপুর উপজেলা যুগিরগোপা গ্রামের মৃত মতি তালুকদারের ছেলে লাভলু তালুকদারের সাথে পরিচয় হয়। একপর্যায়ে লাভলু তালুকদার আতিক কে বলে আমার কাছে পুলিশে চাকুরি দেওয়ার সুযোগ আছে। সরল বিশ^াসে আতিক তার ভাই শরিফুল ইসলাম ওরফে শরিফ ও তার প্রতিবেশি সাগর’র জন্য ২ দফায় এস এ পরিবহনের মাধ্যমে এবং নগদে ১৭’লাখ টাকা প্রদান করে লাভলু ও তার স্ত্রী স্বপ্নাকে। ওই টাকা পাওয়ার পর চাকুরি না দিতে পারায় বিভিন্ন ভাবে তালবাহানা করে। চাকুরি দিতে না পারায় পরবর্তীতে টাকা ফেরত চাইলে ফেরত না দিয়ে উল্টো তাদেরকে বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি ও হুমকী প্রদান করে।
এ বিষয়ে ভূক্তভোগি আতিকুর রহমান জানান, আমি সরল বিশ^াসে ঘরবাড়ী, গরু, দোকানের অর্ধেকাংশ বিক্রি করে ও বিভিন্ন ভাবে সুদে টাকা সংগ্রহ করে প্রতারক লাভলু কে দিয়েছিলাম চাকুরির আশায়। কিন্তু প্রতারক লাভলু সে চাকুরি না দেয়ায় মানসিক ও আর্থিক ভাবে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছি। এহেন অবস্থায় আমার মৃত্যু ছাড়া কোন পথ নেই। বিষয়টির সুবিচার দাবি করে টাঙ্গাইল পুলিশ সুপারের নিকট সম্প্রতি একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি।
এ ব্যাপারে প্রতারক লাভলু’র সাথে বিভিন্ন ভাবে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *