টানা চার জয়ে শীর্ষে বার্সেলোনা

খেলাধুলা

খেলাধুলা ডেস্ক : চ্যাম্পিয়নস লিগে বার্সেলোনার অবস্থান বেশ শক্ত । তাই দলের প্রাণভোমরাকে বিশ্রামে দিয়ে দিনামো কিয়েভের বিপক্ষে ম্যাচ খেলতে নামে বার্সেলোনা।

মেসিকে ছাড়াই অনুষ্ঠিত হওয়া ম্যাচটিতে কিয়েভকে ৪-০ গোলে হারিয়ে দারুন জয় পেয়েছে বার্সেলোনা।

লা লিগায় ধুঁকতে থাকলেও চ্যাম্পিয়নস লিগের ছন্দটা তাই ধরেই রেখেছে কোমানের দল।

বার্সার জয় পাওয়া ম্যাচটিতে চার গোলের দুটি এসেছে ফরোয়ার্ড মার্টিন ব্রাথওয়েটের কাছ থেকে।

বাকি দুটি গোল করেন আঁতোয়ান গ্রিজমান ও সের্জিনো দেস্ত। সবগুলো গোলই হয়েছে দ্বিতীয়ার্ধে।

ইউক্রেনে হওয়া ম্যাচটিতে খেলতে নেমে প্রথমার্ধে গোলের খাতা খুলতে পারেনি বার্সা। তখনো যে অনেকে মেসির কথা স্মরণ করেছেন, তা নিয়ে কোনো সন্দেহ থাকার কথা নয়। শ্লথ আক্রমণ নিয়ে কিয়েভের গোলে ভীতি ছড়াতে অনেকটাই ব্যর্থ হয় বার্সা।

দ্বিতীয়ার্ধে বার্সার কপাল খুলে যায় নিখুঁত পাসিং ফুটবলের কারণে। এই অর্ধে চার চারটি গোল করে দুর্দান্ত জয় ছিনিয়ে নেয় বার্সালোনা।

জয় পাওয়া ম্যাচটিতে বার্সার প্রাণভোমরা হয়ে ওঠেন ব্রাথওয়েট। জোড়া গোল করা ব্রাথওয়েট চ্যাম্পিয়নস লিগে আজই যেমন খেলেছেন প্রথম একাদশে। দুটি গোল করা ছাড়াও একটি গোল করিয়েছেন ডেনমার্কের এই ফরোয়ার্ড।

৫২ মিনিটে রাইটব্যাক দেস্তকে দিয়ে গোলের খাতা খুলিয়েছেন। তাঁর ব্যক্তিগত গোল দুটি এসেছে ৫৭ ও ৭০ মিনিটে।

প্রথম গোলটি ফলোআপে থেকে বলের ওপর চোখ রেখে। কর্নার থেকে উড়ে আসা বলে সতীর্থ এক খেলোয়াড়ের ফ্লিকে দূরের পোস্টে পা ছুঁয়ে বল জালে পাঠিয়ে দেন ব্রাথওয়েট।

চ্যাম্পিয়নস লিগে এটিই তাঁর প্রথম গোল।

ব্রাথওয়েটের দ্বিতীয় গোলটি আসে পেনাল্টি থেকে। স্পটকিক থেকে গোল কিয়েভের জালে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন ব্রাথওয়েট।

অতিরিক্ত যোগ করা সময়ে হালি পূরণ করেছেন বদলি গ্রিজমান। বক্সের মধ্যে থেকে জোরালো শটে গোলটি করেন ফরাসি এই ফরোয়ার্ড।

কিয়েভকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন লিগে শতভাগ জয়ের ধারাতেই থাকল বার্সা। সঙ্গে শেষ ষোলও নিশ্চিত হয়ে গেছে তাদের দুই ম্যাচ বাকি থাকতে।

টানা চার জয়ে ১২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে বার্সেলোনা।

এই গ্রুপ থেকে জুভেন্টাসও নক আউট পর্ব নিশ্চিত করে ফেলেছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *