টিকা দেওয়ার পর হল-ক্লাস চালু: উপাচার্য

জাতীয় শিক্ষাঙ্গন

ডেস্ক রিপোর্ট: স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার জন্য আগামী ১৩ মার্চ হল খোলার সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) কর্তৃপক্ষ। সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী হলগুলো ১৭ মে’র আগে খুলবে না। একইসঙ্গে যেসব বিভাগে পরীক্ষা চলমান তা বিভাগের ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত হবে। তবে নতুন করে কোন পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করা হবে না।

মঙ্গলবার ( ২৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের জরুরি একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সভা শেষে উপাচার্য (ভিসি) ড. আক্তারুজ্জামান বলেন, এখনই হল খোলা হবে না। টিকা দেওয়ার পরই হল খোলা ও ক্লাস চালু হবে। স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান হলেও মহামারিতে জাতীয় সিদ্ধান্তের সঙ্গে মিল রেখে ১৭ মে হল খোলা হবে। ১৭ এপ্রিলের মধ্যে টিকার আওতায় আনা হবে।

এছাড়া ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিলেও যৌক্তিক কারণে হল খোলার বিষয়ে সরকার ও প্রশাসনের সিদ্ধান্তের প্রতি শিক্ষার্থীরা সম্মান প্রদর্শন করবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন উপাচার্য।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত একটি বিভাগের চেয়ারম্যান বলেন, হল খোলার একমাস আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শিক্ষার্থীর জন্য টিকার প্রাথমিক ডোজ নিশ্চিত করা হবে। যেসব বিভাগে পূর্বঘোষিত পরীক্ষা চলমান তা বন্ধ হবে না। তবে নতুন করে পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করা হবে না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে অনুষ্ঠিত একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামান সভাপতিত্ব করেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *