ঠাকুরগাঁওয়ে ২ পৌরসভায় মেয়র পদে ১৯ জনের মনোনয়ন দাখিল

সারাবাংলা

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : দেশের পৌর নির্বাচনের ৪র্থ ধাপে অনুষ্ঠিতব্য ঠাকুরগাঁও ও রাণীশংকৈল পৌরসভার মেয়র ও কাউন্সিলর পদপ্রার্থীদের পক্ষ থেকে মনোনয়ন পত্র দাখিল করা হয়েছে। গতকাল রোববার দাখিলের শেষদিন বিকালে আ’লীগ, বিএনপি ও স্বতন্ত্র মিলে ঠাকুরগাঁও পৌরসভার ৭ জন ও রাণীশংকৈল পৌরসভার ১২ জন মেয়র পদে তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, মনোনয়নপত্র জমা দেন আ’লীগের দলীয় মনোনীত প্রার্থী কেন্দ্রীয় মহিলা লীগের সদস্য আঞ্জুমান আরা বন্যা, বিএনপি’র দলীয় মনোনীত প্রার্থী জেলা বিএনপির অর্থ বিষয়ক সম্পাদক শরিফুল ইসলাম শরিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মনোনীত প্রার্থী আনোয়ার হোসেন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

এছাড়া স্বতন্ত্র হিসেবে জেলা যুবলীগের সভাপতি আব্দুল মজিদ আপেল, যুব মহিলালীগের সভাপতি অধ্যক্ষ তাহমিনা আখতার মোল্লাহ, জেলা আ’লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব বাবলুর রহমান বাবুলও মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। অন্যদিকে ১২ টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে মোট ৫৭ জন প্রার্থী এবং সংরক্ষিত আসনে ৯ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। এদিকে ১১ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে নুর ইসলামের বিপরীতে কোন প্রার্থী মনোনয়ন জমা না দেওয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় তিনি আবারও কাউন্সিলর হতে চলেছেন।

রাণীশংকৈল পৌরসভা নির্বাচনের মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন ১২ জন প্রার্থী। তারা হলেন, বিএনপির মনোনীত প্রার্থী মাহমুদুন নবী পান্না বিশ্বাস, আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান, ভিপি রফিউল ইসলাম (স্বতন্ত্র আঃলীগ বিদ্রোহী), জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী আলম,স্বতন্ত্র প্রার্থী মোখলেসুর রহমান , নওরোজ কাউসার কানন (স্বতন্ত্র আঃলীগ বিদ্রোহী), সাধন বসাক, ইসতেখার আলম ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মোকাররম হোসাইন, আব্দুল খালেক , রুকুনুল ইসলাম ডলার (স্বতন্ত্র আঃলীগ বিদ্রোহী) ও বর্তমান মেয়র আলমগীর সরকার।

এছাড়াও কাউন্সিলর পদে ৩০ জন এবং সংরক্ষিত নারী আসনের ১২ জন প্রার্থী মনোনয়ন ফরম দাখিল করেছেন। রাণীশংকৈলে সকল মেয়র প্রার্থী মিছিল ও শোভাযাত্রাসহ মনোনয়নপত্র জমা দিতে এসে নির্বাচনী আচরণ বিধি লংঘন করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। উপজেলা নির্বাচন অফিসার আখিঁ সরকার জানান, অভিযোগের প্রমাণ পেলে বিধি অনুযায়ি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *