ডিমলায় তিস্তার পানি বৃদ্ধিতে বেড়িবাঁধ ভাঙনের সূত্রপাত

সারাবাংলা

ফয়সাল আহমেদ, ডিমলা থেকে:
উজানের ঢলে নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার খগাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের দোহল পাডা গ্রামের পুর্ব দোহল পাড়ার তিস্তা নদীর গ্রাম রক্ষা বেড়িবাঁধটি ভাঙনের কবলে পরায় এলাকাবাসী আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে। খুব দ্রুতসময়ে মধ্যে কর্তৃপক্ষ বাঁধটি সংস্কার ও ভাঙন রোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ না করলে যে কোনো মুহূর্তে গ্রামটির প্রায় পাঁচ শতাধিক পরিবারসহ হাজার একর আবাদি জমি পানিবন্দি হওয়ার পাশা-পাশি বেশকিছু বসত ভিটা ও আবাদি জমি নদীগর্ভে বিলীন হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।
রোববার সরেজমিনে এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়,সপ্তাহ খানেক আগে উজানের ঢলে তিস্তা নদীর পানি আকস্মিক ভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় বেড়িবাঁধটিতে ভাঙনের সুত্রপাত হয়। প্রতিদিন যুক্ত হচ্ছে নতুন করে ভাঙন।খুব দ্রুত বেরিবাঁধটি সংস্কার ও পুনর্র্নিমাণ কার্যক্রম শুরু না হলে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। ইতিমধ্যে বেশ কিছু নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হওয়ায় অনেকেই নিজের বসত ভিটা ফেলে রেখে আত্মীয়-স্বজনের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন।
এদিকে বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র সূত্র জানা যায়, গতকাল রোববার ভোর ৬টায় তিস্তা ব্যারেজের ডালিয়া পয়েন্টে বিপদসীমার ১৫ সেন্টিমিটার নিচে পানি থাকলেও সতর্কতার স্বার্থে ব্যারেজের সবকটি জলকপাট খুলে রাখা হয়েছে। এ বিষয়ে ডিমলা পানি উন্নয়ন বোর্ড(পাউবো)ডালিয়া ডিভিশনের দায়িত্বে থাকা নির্বাহী প্রকৌশলী বলেন, বিষয়টি জানার পর সেখানে আমাদের প্রতিনিধি পাঠানো হয়েছে। পর্যবেক্ষণ রিপোর্ট অনুসারে বাঁধ রক্ষায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *