ডিমলায় পশু বিক্রি নিয়ে দুশ্চিন্তায় খামারি

সারাবাংলা

ফয়সাল আহমেদ, ডিমলা থেকে:
নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার খামারিরা করোনার কারণে কোরবানি পশু বিক্রি নিয়ে পড়েছে চরম দুশ্চিন্তায়,আর মাত্র কয়েকদিন পরেই পবিত্র ঈদুল আযহা। ঈদুল আযহা মানেই পশু কেনা বেচার ধুম। অথচ অন্যান্য বছরের মতো এখন পর্যন্ত দেখা নেই ব্যাপারীদের। খামারিদের পুত্যাশা ছিল ঈদের আগে হাটে পশু বিক্রি করে মুনাফা করবেন কিন্তু এখন খামারিরা ক্ষতির সম্ভাবনা দেখে হতাশ হয়ে পড়েছেন। খামারিরা বলেছেন, প্রতিবছর ঈদুল আযহার ১ মাস আগে থেকেই দেশের বিভিন্ন এলাকার গরুর ব্যাপারীরা এসে খামারে খামারে ঘুরে গরু কেনা শুরু করেন। তবে এবার গরু কেনার বিন্দুমাত্র আগ্রহ দেখা যাচ্ছে না ব্যাপারীদের।
উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ রেজাউল হাসান বলেন, ডিমলা উপজেলার ছোট বড় সবমিলে প্রায় ৩০০ খামারি আছে। গত বছরেও কোরবানির সময়ে করোনা পরিস্থিতি বিরাজ করেছিল। এবার করোনা পরিস্থিতি বিবেচনা করে খামারিরা যেন লোকসানে না পড়ে এই জন্য প্রাণিসম্পদ দপ্তরের সার্বিক সহযোগিতায় আমরা অনলাইনের মাধ্যমে কোরবানির গরু বিক্রির জন্য সর্বাত্নক চেষ্টা চালাচ্ছি। সফলভাবে অনলাইনে কোরবানির পশু কেনা বেচা করা সম্ভব হলে ক্রেতা, বিক্রেতা ও খামারিসহ সকলে লাভবান হবেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *