ঢাকা টেস্টে দ্বিতীয় দিন শেষে চাপের মুখে বাংলাদেশ

খেলাধুলা

ক্রীড়া ডেস্ক : ঢাকা টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে চাপের মুখে বাংলাদেশ। দিনের শুরু থেকে হতাশায় ডুবিয়েছেন বোলাররা। তাই প্রথম ইনিংসে বিশাল সংগ্রহ গড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শুক্রবার দিন শেষে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১০৫ রান। ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে টাইগাররা এখনো ৩০৪ রান পিছিয়ে রয়েছে। প্রথম ইনিংসে ওয়েস্ট ইন্ডিজ করেছে ৪০৯ রান।

দ্বিতীয় দিন শেষে মুশফিকুর রহিম ২৭ রানে ও মোহাম্মদ মিথুন ৬ রান করে অপরাজিত আছেন। ৪৪ রান করে আউট হন তামিম ইকবাল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বোলারদের মধ্যে শ্যানন গ্যাব্রিয়েল ২টি, রাখিম কর্নওয়াল ১টি ও আলজারি যোসেফ ১টি করে উইকেট শিকার করেন।

ইনিংসের শুরুটা ভালো হয়নি বাংলাদেশের। সৌম্য সরকার সাজঘরে ফিরে যান ব্যক্তিগত শূন্য রানে। এরপর মাত্র ৪ রান করে ফেরেন নাজমুল হোসেন শান্ত। তাদের দুজনের উইকেট তুলে নেন শ্যানন গ্যাব্রিয়েল।

এরপর তৃতীয় উইকেট জুটিতে ভালো খেলছিলেন তামিম ইকবাল এবং মুমিনুল হক। কিন্তু দলীয় স্কোরটা বেশিদূর নিয়ে যেতে পারেননি তারাও। জুটি ভাঙার পূর্বে এই দুজন মিলে করেন ৫৮ রান। ব্যক্তিগত ২১ রানে কর্নওয়ালের বলে উইকেটরক্ষকের হাতে ক্যাচ তুলে দেন মুমিনুল। রান তুলতে ব্যস্ত হয়ে ওঠা তামিমকে ফেরান আলজারি জোসেফ। ৫২ বলে ৪৪ রান করেন এই টাইগার ওপেনার।

এর আগে আজ দিনের শুরুতে ব্যাট করতে নামেন প্রথম দিন অপরাজিত থাকা ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান বোনার এবং জশুয়া ডি সিলভা। ব্যাট হাতে দুর্দান্ত খেলতে থাকা এই দুই ব্যাটসম্যানের হাত ধরে বড় সংগ্রহের দিকেই এগোচ্ছিল উইন্ডিজ। দুজনে গড়েন ৮৮ রানের জুটি। শুক্রবার দিনের ১২তম ওভারে মিরাজের করা দ্বিতীয় বলে মোহাম্মদ মিথুনের হাতে ক্যাচ তুলে বিদায় নেন বোনার। তার ৯০ রানের ইনিংসটি ৭টি চারে সাজানো।

এরপর সপ্তম উইকেট জুটিতে আলজারি যোসেফকে সঙ্গে নিয়ে ইনিংস সেরা জুটি গড়েন সিলভা। দলীয় ৩৮৪ রানে তাদের ১১৮ রানের জুটিটি থামে। ইনিংসের ১৩৭তম ওভারের তৃতীয় বলে জশুয়াকে বোল্ড করে সাজঘরে ফেরান তাইজুল। জশুয়া করেন ৯২ রান। পরের ওভারে যোসেফকে প্যাভিলিয়নে পাঠান পেসার রাহি। ১০৮ বলে ৮২ রান করা তার ওয়ানডে ধাচের ইনিংসটি ৮টি চার এবং ৫টি ছক্কায় সাজানো।

জোমেল ওয়ারিকানকেও ক্রিজে বেশিক্ষণ থাকতে দেননি রাহি। ২ বলে ২ রান করে লিটন দাসের হাতে ক্যাচ তুলে দেন ওয়ারিকান। শেষ উইকেটে কর্নওয়ালকে নিয়ে ১১ রানে জুটি গড়েন শ্যানন গ্যাব্রিয়েল। তাইজুলের বলে মুশফিকুর রহিমের হাতে ক্যাচ তুলে দেওয়ার আগে ৮ রান করতে সক্ষম হন গ্যাব্রিয়েল। আর ৪ রানে অপরাজিত থাকেন কর্নওয়াল।

এর আগে গতকাল (বৃহস্পতিবার) দিনের শুরুতে টস জিতে ব্যাট করতে নামে সফররত ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দিন শেষে সফরকারীদের সংগ্রহ ছিল ৫ উইকেটে ২২৩ রান। এদিন দলের হয়ে ৪৭ রান করেন অধিনায়ক ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট। আর ওপেনার জন ক্যাম্পবেল খেলেন ৩৬ রানের ইনিংস।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশে হয়ে আবু জায়েদ রাহি ৪টি, তাইজুল ইসলাম ৪টি, মেহেদী হাসান মিরাজ ১টি ও সৌম্য সরকার ১টি করে উইকেট শিকার করেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
দ্বিতীয় দিন শেষে ৩০৪ রানে পিছিয়ে বাংলাদেশ।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম ইনিংস : ৪০৯ (১৪২.২ ওভার)
(ক্রেইগ ৪৭, ক্যাম্পবেল ৩৬, মোসেলে ৭, বোনার ৯০, মায়ার্স ৫, ব্লাকউড ২৮, জশুয়া ৯২, আলজারি ৮২, কর্নওয়াল ৪*, ওয়ারিকান ২, গ্যাব্রিয়েল ৮; রাহি ৪/৯৮, মিরাজ ১/৭৫, নাঈম হাসান ০/৭৪, তাইজুল ৪/১০৮, সৌম্য ১/৪৮)।

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস : ১০৫/৪ (৩৬ ওভার)
(তামিম ৪৪, সৌম্য ০, শান্ত ৪, মুমিনুল ২১, মুশফিক ২৭*, মিথুন ৬*; গ্যাব্রিয়েল ২/৩১, কর্নওয়াল ১/১৮, আলজারি ১/৩৪, মায়ার্স ০/১২, ওয়ারিকান ০/১০)।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *