তালতলীতে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

সারাবাংলা

তালতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি :
বরগুনার তালতলীতে শিল্পী রানী (২২) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে পরিবারের দাবি হত্যা করে লাশ টানিয়ে রাখা হয়েছে। গত শুক্রবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার চরপড়া এলাকা থেকে ঝুলান্ত মরাদেহ উদ্ধার করা হয়। উপজেলার চরপাড়া গ্রামের সমীর বেপারীর স্ত্রী শিল্পী পটুয়াখালী জেলার মহিপুর এলাকার বিমল কবিরাজের মেয়ে। নিহতের মা মঞ্জু রানী ও বাবা বিমল কবিরাজ দাবি করেন আমার মেয়ের স্বামী সমীর বেপারী ও তার চাচা বিজয় বেপারীর সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ জমিজমা নিয়ে ঝামেলা চলে আসছিলো। সেই ঘটনাকেই কেন্দ্র করে ওনদিন বিকাল ৩টির দিকে আমার জামাই ও মেয়েকে মারধর করেন তারা। এক পর্যায় স্থানীয়রা মীমাংসা করে দেয়। এর পরে তারই জের ধরে আমার মেয়েকে বিজয় বেপারী ও তার পুত্রবধু হত্যা করে ঘরের আরার সাথে ঝুলিয়ে রাখে । আমরা এই হত্যাকান্ডের বিচার চাই।
এ বিষয়ে বিজয় বেপারী বলেন, আমাদের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। এদিকে সুরাতহাল রিপোর্টে পুলিশ জানান, নিহতের শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন নেই। শুধু গলায় ফাঁসের দাগ রয়েছে। অন্যদিকে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যুতে স্থানীয়দের মাঝে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ কামরুজ্জামান মিয়া জানান, গৃহবধূর ঝুলান্ত লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *